মাউন্ট মঙ্গানুইতে সিরিজের প্রথম টেস্টে টসে জিতে ব্যাট করে সফরকারী ইংল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত ইংলিশররা ম্যাচটি হারে ইনিংস ব্যবধানে। গতকাল পাকিস্তান এবং বাংলাদেশের পর আজ নিউজিল্যান্ডের কাছে ইংল্যান্ড হারলো ইনিংস ও ৬৫ রানের ব্যবধানে।

বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) প্রথম টেস্টে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট। প্রথম ইনিংসের প্রথম দিনের শুরুটা ভালো করলেও দ্বিতীয় দিনে এসে মাত্র ৩৫৩ রানেই অল আউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল।

ইংলিশদের হয়ে প্রথম ইনিংসে ব্যাক্তিগত সর্বোচ্চ রান করেন তারকা অল রাউন্ডার বেন স্টোকস (৯১)। ইংল্যান্ডের করা ৩৫৩ রানকে সামাল দিতে নিউজিল্যান্ড তাদের শুরুটা করে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের হাত ধরে।

৫১ রান করে উইলিয়ামসন প্যাভিলিয়নে ফিরলেও দলের হাল ধরেন অলরাউন্ডার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম (৬৫), উইকেটকিপার বিজে ওয়াটলিং (২০৫) ও স্পিন অলরাউন্ডার মিচেল স্যান্টনার (১২৬)। বিজে ওয়াটলিং এর ডাবল সেঞ্চুরিতে নিউজিল্যান্ড দল প্রথম ইনিংসে ডিক্লেয়ার ঘোষণা করে ৯ উইকেট হারিয়ে ৬১৫ রানের মাথায়।

নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডকে দিয়ে বসে ২৬২ রানের পাহাড় সমান লিড। ২৬২ রানের লিড এড়াতে চতুর্থ দিনের শেষ সেশনে বেশ ভালো খেলছিলো সফরকারী দল। তবে শেষ বিকেলে কাল নাটকীয়ভাবে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে ইংল্যান্ড।

বে ওভালের উইকেট ব্যাটসম্যানদের জন্য এমন কোনো বধ্যভূমি হয়ে যায়নি শেষ দিনেও। স্পিন ধরছিল বেশ। মিচেল স্যান্টনার একপাশ থেকে চাপে রাখলেও উইকেট পাননি। বরং কিউই পেসারদেরই উইকেট দিয়ে এসেছে ইংলিশরা।

পঞ্চম দিনে ম্যাচ গড়ালে জো ডেনলি ও জো রুট আজ সকালের সেশনটা শুরু করেছিলেন। প্রথম এক ঘন্টা দুজন মোটামুটি দেখেশুনেই পার করে দিচ্ছিলেন। কিন্তু এর পরেই ধৈর্য হারিয়ে বসেন ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট। কলিন ডি গ্র্যান্ডোমের অফ স্টাম্পের বাইরের শর্ট বলটা তাড়া করতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন গালিতে। মাত্র ১১ রা্ন করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান এই ইংলিশ অধিনায়ক।

ডেনলি অবশ্য দেখেশুনে খেলছিলেন এবং তারই সঙ্গ দিতে স্টোকসও একই কাজ করছিলেন। এতে করে লাঞ্চ পর্যন্ত আর কোনো উইকেট হারাতে হয়নি ইংল্যান্ডকে। টেস্ট বাঁচিয়ে ফেলার সম্ভাবনাটা ছিল ভালোমতোই।

কিন্তু লাঞ্চের পরেই যেনো মনযোগ নষ্ট করে ফেলে ইংলিশ ক্রিকেট দল। কিউই পেসার ওয়াগনার দেখাতে লাগলেন তার বাম হাতের খেল। শেষ দিনে লাঞ্চ সেশনের পরই ব্যাক্তিগত ৫ উইকেট নিয়ে নেন কিউই পেসার নিল ওয়াগনার।

সেইসঙ্গে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ইংল্যান্ডকে ইনিংস এবং ৬৫ রানে হারিয়ে ১-০তে এগিয়ে যায় স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড।

ইংল্যান্ড ৩৫৩ ও ৯৬.২ ওভারে ১৯৭ অলআউট
নিউজিল্যান্ড ৬১৫/৯ ডিক্লে
ফলাফল: নিউজিল্যান্ড ইনিংস ও ৬৫ রানে জয়ী
ম্যাচ সেরা: বিজে ওয়াটলিং