ডিমের খাদ্য গুণের কথা কমবেশি সবাই জানেন। বিভিন্ন রকমের ভিটামিন, প্রোটিন ও খনিজে ভরপুর ডিম খেলে শরীরের নানা উপকার হয়।

রান্না, ভাজা, সিদ্ধ, পোজসহ বিভিন্নভাবে ডিম খাওয়া যায়। কেউ কেউ আবার ডিম কাঁচা খেতেও ভালোবাসেন।

তবে দ্য জার্নাল অব নিউট্রিশনে প্রকাশিত এক গবেষণাপত্র থেকে জানা যায়, পুষ্টির দিক দিয়ে কাঁচা ডিমের চেয়ে এগিয়ে রান্না করা ডিম। রান্না করা ডিমে প্রোটিনের পরিমাণ থাকে ৯১ শতাংশ। অন্যদিকে কাঁচা ডিমে প্রোটিন পাওয়া যায় ৫০ শতাংশ। ডিম রান্না করলে পুষ্টিগুণের দিক দিয়ে গঠনগত পরিবর্তন হয়। এতে প্রোটিনের পরিমাণও বেড়ে যায়।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ রান্না করা ডিমই যদি দ্বিতীয়বার গরম করা হয় তাহলে এর পুষ্টি গুণ নষ্ট হয়। ডিমের মধ্যে নানা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া জন্মে। এসব ব্যাকটেরিয়া পেটের জন্য খুবই ক্ষতিকর। এছাড়া ডিম দ্বিতীয়বার গরম করলে এর মধ্যে থাকা নাইট্রোজেন অক্সিডাইজড হয় যা ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। এ কারণে পুষ্টিবিদদের মতে, ডিম রান্না কিংবা ভাজা যেভাবেই খান না কেন, কোনোটাই দ্বিতীয়বার গরম করে খাওয়া ভালো নয়।