ইংল্যান্ড থেকে সৃষ্ট নতুন ধরনের করোনায় ধুকছে ইতালি। এই ভাইরাসটি সাধারণ করোনা ভাইরাসের তুলনায় অনেক গুণ মারাত্মক। কারণ এটি ৭০% বেশি গতিতে করোনা ছড়াচ্ছে। ইতালির তিন শহরে ৬ জন নতুন ভাইরাস সার্স কোভ-২ (এসএআরএস-সিওভি-২) তে সংক্রমিত বলে শনাক্ত করা হয়েছে। এই তিন শহরের মধ্যে রোম অন্যতম। ভাইরাস আতঙ্কে এরইমধ্যে সোমবার থেকে আগামী ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ইংল্যান্ডের সঙ্গে সব ধরনের ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইতালি সরকার।

জানা যায় ইংল্যান্ড থেকে আগত এক বৃটিশ নারীর দেহে সর্বপ্রথম এই নতুন ধরনের ভাইরাসটি দেখা যায়। ওই নারী রাজধানী রোম শহরে অবস্থান করছিলেন। ওই নারীর সংগীর দেহেও করোনা পরীক্ষা করা হয় এবং তার শরীরেও একই ধরনের ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। এরপর পুরো ইতালী জুড়ে চাঞ্চল্য শুরু হয়। এরপর দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানান দেন যে এই ভাইরাসটি খুবই মারাত্মক। তাই দেশটির সরকার আগামী ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ইংল্যান্ডের সাথে সকল ফ্লাইট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সরকারের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়, আগামী ২৪ ডিসেম্বর থেকে দেশব্যাপী শুরু হবে লকডাউন। এছাড়া রোমসহ সকল শহরে জনসাধারণের চলাচলের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। এতে এক বিভাগীয় অঞ্চল থেকে অন্য অঞ্চলে দেশটির নাগরিকরা যাতায়াত করতে পারবে না।

সোমবার সকালে বারি শহরে আরও এক যুবক এই নতুন ভাইরাসে সংক্রমিত বলে জানা যায়। গত বৃহস্পতিবার ওই যুবকও ইংল্যান্ডে ছুটি কাটিয়ে বারি শহরে ফিরে আসেন। এছাড়া এক পত্রিকার সংবাদ থেকে জানা যায়, রোববার সন্ধ্যায় ইতালির পালেরমো শহরে ১৩৪ জন যাত্রী নিয়ে অবতরণ করে লন্ডন থেকে আসা রাইন এয়ারের সবশেষ ফ্লাইট। এই যাত্রীদের মধ্যে ৩ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। বাকী যাত্রী সকলেরই নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এছাড়া আরো দুই যাত্রীকে সন্দেহভাজন হিসেবে নিবিড় পরিচর্যার মধ্যে রাখা হয়েছে।

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000