আমাদের প্রতিদিনের খাবার তালিকায় লবণ খেয়ে থাকি। লবণ ছাড়া আমাদের একদমই চলা দায়।

অনেকেই জানি যে, অতিরিক্ত মাত্রায় লবণ খেলে বাড়ে রক্তচাপ। এ ছাড়া একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা মাথাচাড়া দিতে পারে। বাড়ে হার্টঅ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকিও! এমনটিই জানাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)।

বছরখানেক আগের একটি সমীক্ষায় জানা গেছে, প্রতি বছর ১৬ লাখের বেশি মানুষ মারা যায় শুধু শরীরে অতিরিক্ত সোডিয়াম জমা হওয়ার কারণে। আর শরীরে সোডিয়ামের জোগান বা ভারসাম্য বজায় রাখে লবণ।

২০১৭ সালে দিল্লিতে আয়োজিত তিন দিনের এক সম্মেলনে আন্তর্জাতিক স্নায়ু বিশেষজ্ঞরা জানান, ভারতে ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়া রোগীর মধ্যে ২০ শতাংশের বয়স ৪০ বছরের নিচে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্ধারিত পরিমাণ অনুযায়ী, দিনে ৫ গ্রামের বেশি লবণ খাওয়া ঠিক নয়।

গবেষকরা ১৮৭ দেশের সাধারণ মানুষের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন- বহু ক্ষেত্রেই দিনে ৫ গ্রামের চেয়ে বেশি পরিমাণ লবণ খেয়ে থাকেন অধিকাংশ দেশের মানুষ।

ওই গবেষণায় জানা গেছে, গোটা বিশ্বের হিসাবে একজন মানুষ গড়ে ৩.৯৫ গ্রাম লবণ খেয়ে থাকেন।

তবে মধ্য এশিয়ায় বসবাসকারী মানুষের নুন খাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি। এ অঞ্চলে বসবাসকারী কোনো ব্যক্তি দিনে গড়ে প্রায় ৫.৫১ গ্রাম লবণ খেয়ে থাকেন। ভারতে একজন ব্যক্তি দিনে গড়ে প্রায় ১০ গ্রাম লবণ খান, যা নির্ধারিত পরিমাণের দ্বিগুণ।