মডেল ও অভিনেত্রী মিষ্টি মারিয়া চোখের দৃষ্টি হারাতে বসেছেন। কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করায় তিনি এখন চোখের দৃষ্টি হারানোর শঙ্কায় পড়েছেন। নাটকের শুটিংয়ে গিয়ে চরিত্রের প্রয়োজনে চোখে কন্টাক্ট লেন্স পরতে হয়েছিল। শুটিং শেষে লেন্স খোলার পর থেকেই তিনি এখন পর্যন্ত চোখে দেখতে পারছেন না! প্রায় এক দিন পেরিয়ে যাওয়ার পরও চোখ খুলতে পারছেন না বলে জানান এই অভিনেত্রী।
 
চোখের সৌন্দর্য বাড়াতে নানা কনাক্ট লেন্স পরে থাকেন। অনেক তারকাকেও দেখা যায়, লেন্স ব্যবহার করে শুটিংয়ে অংশ নেন। কিন্তু এই লেন্স দেখা দিল ভয়ংকর হয়ে।

গত সপ্তাহে একটি নাটকের শুটিংয়ের জন্য উত্তরবঙ্গে গিয়েছিলেন মিষ্টি মারিয়া। গত ১২ অক্টোবর চরিত্রের প্রয়োজনে তাঁকে এক জোড়া কনটাক্ট লেন্স পরতে হয়। লেন্স খোলার পর থেকে চোখে দেখতে পারছেন না তিনি। 

এরপর জরুরি ভিত্তিতে ওই রাতেই ট্রেনযোগে জয়পুরহাট থেকে ঢাকায় ফেরেন মিষ্টি। বর্তমানে রাজধানীর ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল এবং মিশন চক্ষু হাসপাতালে তাঁর চোখের চিকিৎসা চলছে বলে জানিয়েছেন মিষ্টি মারিয়া।

মিষ্টি মারিয়া বলেন, ‘গত সপ্তাহে উত্তরবঙ্গের জয়পুরহাট গিয়েছিলাম। সেখানে ওই নাটকের শুটিংয়ের সময় চোখে ফ্রেশ লুক কম্পানির এক জোড়া কন্টাক্ট লেন্স পরে নাটকের শুটিং করি। গত ১২ অক্টোবর শুটিং শেষে লেন্স খোলার পর থেকে চোখে দেখতে পারছি না।

জরুরি ভিত্তিতে ওই রাতেই ট্রেনে জয়পুরহাট থেকে ঢাকায় ফিরে আসি। এরপর ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল এবং মিশন চক্ষু হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিই।’

তিনি জানান, ডাক্তার প্রথম দিকে বলছিলেন যে এটা তেমন কিছু নয়। ঠিক হয়ে যাবে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে। লেন্স খোলার সময় হয়তো চোখের কর্নিয়ার ফার্স্ট লেয়ার ফেটে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ কারণে দেখা যাচ্ছে না। ডাক্তার বলেন, এসব ক্ষেত্রে সাধারণত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লেয়ার তৈরি হয়ে যায়।

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000