সরকারের অনুমতি নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যুক্তরাজ্যে যেতে চাইলে ব্রিটিশ সরকারের আপত্তি থাকবে না—এমনই ইঙ্গিত করেছেন বাংলাদেশে ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন।

গতকাল বুধবার ঢাকায় কূটনৈতিক সংবাদদাতাদের সংগঠন ডিকাবের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠান ‘ডিকাব টকে’ তিনি এমন ইঙ্গিত দেন।

ব্রিটিশ হাইকমিশনারের কাছে সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল, সরকার যদি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে যুক্তরাজ্যে চিকিৎসা নেওয়ার অনুমতি দেয় তাহলে যুক্তরাজ্য কি তাঁকে সেই সুযোগ দেবে?

জবাবে চ্যাটারটন ডিকসন বলেন, ‘আমরা সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যক্তির বিষয়ে মন্তব্য করি না। নিকট অতীতে তাঁর ভিসা আছে। আমি আশা করি, তাঁর ব্রিটেনে আসার বিষয়ে আমাদের কোনো আপত্তি থাকবে না। তবে তিনি আবারও ভিসার জন্য আবেদন করবেন কি না সেটি তাঁর বিষয়।

তবে আমি বলব, তাঁর পরিবারের কয়েকজন যুক্তরাজ্যে আছেন। তাঁর নিবিড় পারিবারিক যোগাযোগ আছে। তিনি যদি ভিসার জন্য আবেদন করেন আমরা তা সানন্দে গ্রহণ করতে পারি। তাঁর ভিসা দেওয়া হবে কি না সে বিষয়ে আমাদের মিনিস্টাররা (ভিসাবিষয়ক কর্মকর্তারা) সিদ্ধান্ত নেবেন।’ ভিসা সম্পর্কে অন্য এক প্রশ্নের জবাবে ব্রিটিশ হাইকমিশনার আরো বলেন, ব্রিটিশ ভিসা কার্যক্রম সচল রয়েছে।

উল্লেখ্য, বাসায় থেকে চিকিৎসা নেওয়ার শর্তে খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ গত মাসে দ্বিতীয় দফায় ছয় মাস বাড়ানো হয়েছে।

এদিকে ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনটি তৈরি এবং ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত হয়ে গেলে বাংলাদেশেও পাওয়া যাবে। তবে ব্রিটিশ এই ভ্যাকসিনের কোনো ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল বাংলাদেশে হচ্ছে না। সব দেশে ভ্যাকসিনের সমান প্রাপ্যতার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিচ্ছে যুক্তরাজ্য।

মিয়ানমারের রাখাইনের পরিস্থিতি খুব বেশি উৎসাহজনক নয় উল্লেখ করে ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, যুক্তরাজ্য রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধের জবাবদিহি নিশ্চিত করার জন্য বিদ্যমান ব্যবস্থাকে সক্রিয়ভাবে সমর্থন করছে।

তিনি বলেন, মিয়ানমার আইসিজে এবং আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) চাপের মুখে থাকবে।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদারির কথা উল্লেখ করে চ্যাটারটন ডিকসন বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে খুব নিবিড়ভাবে কাজ করছি।’ রাখাইনে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ এবং স্বেচ্ছা প্রত্যাবাসনের ওপর জোর দিয়ে হাইকমিশনার বলেন, ‘আমরা আমাদের সাধ্যমতো কাজ করছি।’

ডিকাব সভাপতি আঙ্গুর নাহার মন্টির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমানসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।