পৃথিবীতে অনেক আশ্চর্যজনক ঘটনা ঘটে। আর এমনি এক ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার ম্যাসানুটেন রিসোর্টে। সেখানে ছুটি কাটাতে আসা এক দম্পতির ৪ বছরের শিশু ছেলে ডমিনিক বাইরে খেলতে গিয়েছিল। আর কিছু সময় পর খেলা শেষে সে ফিরে আসে, কিন্তু সে একা আসে না। তার সাথে ছিল তার এক নতুন বন্ধু। আর তার ছেলের নতুন বন্ধুকে দেখে ডমিনিকের মা অবাক হয়ে যায়। কারণ তার ছেলের বন্ধু একটি হরিণের বাচ্চা ছিল! আর এই দৃশ্য দেখে তার মা স্টেফানি সঙ্গে সঙ্গে একটি ছবি তুলে নেন। পরে তিনি এই ছবিটি ফেসবুকে শেয়ার করলে মুহুর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়।

পরে এক সাক্ষাতকারে ডমিনিকের মা বলেন, তিনি রিণটিকে দেখে কিছুক্ষণের জন্য স্তব্ধ হয়ে যান। কি করবেন তিনি বুঝতে পারছিলেন না। এরপর তিনি দেরি না করে দ্রুত সেই মুহুর্তের ছবি তুলে নেন। এই হরিনের বাচ্চাটি অদ্ভুত এক মায়াভরা চোখে তার দিকে তাকিয়ে ছিল। এটা দেখে তিনি খুব আনন্দিত হোন।

তিনি আরো জানান এই সময় হরিনের বাচ্চাটি একটুও ভীত ছিলনা। তার মনে হচ্ছিল, হরিনের বাচ্চাটি তার ছেলের সাথে আসতে পেরে বেশ খুশি ছিল। কেননা তিনি জানতেন, হরিণেরা সাধারণত খুবই ভীতু প্রকৃতির হয়, এরা সহজে মানুষের কাছে আসে না বা সামান্য শব্দ শুনলেই ছুটে পালায়। কিন্তু তিনি লক্ষ্য করছিলেন। এই হরিনের বাচ্চাটি তার ৪ বছরের ছেলের সাথে খুব আরামে দাঁড়িয়ে আছে। একটুও ভয় পায়নি। তার মনে হচ্ছিল হরিনের বাচ্চাটি তার ছেলের পূর্বপরিচিত।

স্টেফানি আরো জানিয়েছেন, ছোট্ট ডমিনিক হরিণটিকে ঘরের ভেতরে আনতে চেয়েছিল কিছু খেতে দেওয়ার জন্য। অবশ্য, হরিণশাবকটি যেন দলছুট হয়ে না যায়, এজন্য তাকে আবার জঙ্গলে ফিরিয়ে দিয়ে এসেছে সে। এদিকে এই খবরটি ফলাও করে খবর প্রকাশ করেছে ফক্স, এবিসি নিউজের মতো বড় বড় গণমাধ্যমও। আর এই ছবি গুলো ফেসবুকে শেয়ার করা হলে লাইক কমেন্টের বন্যা বয়ে যায়।