করোনা মহামারির কারণে চাকরি ছেড়ে দেওয়া কিংবা পেশা বদলানোর কথা ভাবছেন বিশ্বের লাখ লাখ নারী। সন্তান দেখাশোনা এবং লকডাউনের কারণে গৃহস্থালির কাজ বেড়ে যাওয়ায় নারীরা পেশা নিয়ে এ ধরনের দোটানায় পড়েছেন বলে এক জরিপে উঠে এসেছে। জরিপে দেখা গেছে, গৃহস্থালির কাজ বেড়ে গেলেও স্বামী কিংবা পুরুষ সঙ্গীদের কাছ থেকে নারীরা পর্যাপ্ত সহযোগিতা পাচ্ছেন না।

জরিপটি করেছে নারীর অধিকার নিয়ে কাজ করা যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংগঠন লিন। জরিপের অংশ হিসেবে তারা যুক্তরাষ্ট্রের ৩১৭টি প্রতিষ্ঠানের ৪০ হাজার কর্মীর সাক্ষাৎকার নিয়েছে।

এঁদের মধ্যে ২৫ শতাংশ নারী জানিয়েছেন, লকডাউনের কারণে তাঁদের ওপর ঘরে-বাইরে কাজের চাপ বেড়ে গেছে। এই চাপ তাঁদের মানসিক স্বাস্থ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।

এই কারণে তাঁরা চাকরি ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবছেন। আরো ২৫ শতাংশ নারী মনে করেন, লকডাউনে গৃহস্থালির কাজ বেড়ে যাওয়ায় তাঁদের পেশাজীবন মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

জরিপে দেখা গেছে, করোনা মহামারির কারণে অনেক পুরুষও একই ধরনের সমস্যায় ভুগছেন। তবে তাঁদের সংখ্যা নারীদের তুলনায় কম। ‘লিন’ মনে করে, এ ধরনের পরিস্থিতি থেকে নারীদের মুক্তি দেওয়ার ক্ষেত্রে চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

এ সময় নারীদের ওপর কাজের চাপ কমিয়ে দিলে সমস্যা অনেকটা কমে যাবে বলে মনে করেন নারী অধিকারকর্মীরা। সূত্র : ডেইলি মেইল।