রাজধানীর ডিবি কার্যালয়ের সামনে সন্তানকে সাথে নিয়ে অজোরে কান্না করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরের স্ত্রী মারিয়া আক্তার।

এসময় নুরের স্ত্রী মারিয়া আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না এধরনের একটি মিথ্যা গুজব মামলায় নুরুকে গ্রেফতার করা হবে। আমি এ ধরনের পরিস্থিতির স্বীকার কখনো হইনি আর কখনো হবো তা কল্পনাও করিনি। আমি কখনো ভাবিনি আমাকে এভাবে মিডিয়ার সামনে আসতে হবে। আমি আমার স্বামীকে ফেরত চাই আর কিছু চাই না।

তিনি বলেন, আমি আমার স্বামীকে চিনি। দীর্ঘ ৫ বছর আমাদের সংসার। ও কেমন আমি জানি। ও কখনো এরকম কাজ করেনি। তিনি আরো বলেন, আমিতো মা, ওকে যখন গ্রেফতার করে নিয়ে আসতে যাবে তখন আমার সন্তান গাড়ির দরজার সামনে গিয়ে বলছে মা বাবা এসেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে আপনাদের এখনো কোনো কিছু জানানো হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন না আমাদেরকে এখনো পর্যন্ত কোনো কিছু জানানো হয়নি। ওকে যখন হাসপাতাল থেকে নিয়ে আসা হয় তখন আমাদের কে বলেছে ওকে নিউরোসার্জারি তে ভর্তি করা হবে। আমাদেরকে মিথ্যা বলে ওকে পেছনের দরজা দিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে। সামনের দরজা দিয়ে ওকে নিয়ে আসেনি। আমি তখন বুঝতে পারছি ওকে নিয়ে যাচ্ছে। এর আগে বুঝতেও পারিনি ওকে নিয়ে যাচ্ছে।

নুরের স্ত্রী বলেন, ও এমনিতে শারীরিকভাবে অসুস্থ। কয়েকবার ও মাইর খাইছে। ওর বুকের পাজরে সমস্যা আছে। ওর মেরুদণ্ডে দুইটা হাটুতে ফ্যাকচার।

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000