পানীয় হিসেবে জনপ্রিয় গ্রিন টি ত্বকের যত্নেও খুবই উপকারি। ত্বকের নানা সমস্যা দূর করে ত্বকের মসৃণতা ধরে রাখে। এছাড়া ক্লেনজার, টোনার, ফেস প্যাক, স্ক্র্যাবারসহ নানাকাজে গ্রিন টি অত্যন্ত কার্যকর।

গ্রিন টি যেভাবে ত্বকের বয়স কমায়-

গ্রিন টিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পলিফেনল, ট্যানিন ও ফ্লোরাইড। যা ত্বকের বলিরেখা, দাগ, বয়সের ছাপ দূর করে ত্বকের লাবণ্যতা ধরে রাখে।

যেভাবে ব্যবহার করবেন

ক্লেনজার

ক্লেনজার হিসেবে গ্রিন টির ত্বকের গভীরে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করে ত্বক কালচে হওয়া ও ব্রণ রোধ করে। বাজারে কেনা ক্লেনজারের সঙ্গে পরিমাণমতো গ্রিন টি মিশিয়ে নিন। ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ত্বক ভালোভাবে পরিষ্কার হবে। ত্বকের তৈলাক্তভাবও দূর হবে।

টোনার

গরম পানিতে পরিমাণমতো গ্রিন টি দিয়ে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। ঠান্ডা হলে ছেঁকে নিন এবং পানি বোতলে রাখুন। এই পানিতে গ্লিসারিন, অ্যালোভেরা জেল ও গোলাপ জল মিশিয়ে নিন। ত্বক পরিষ্কারের পর তুলার বলে টোনার নিয়ে ত্বকে লাগান। নিয়মিত ব্যবহার ত্বকের কালচেভাব দূর হবে।

স্ক্র্যাবার

ত্বকের মৃতকোষ ও দাগছোপ দূর করতেও স্ক্র্যাব সহায়ক। প্রাকৃতিক স্ক্র্যাবার ব্যবহারে ত্বকের কোমলতা ও তরতাজা ভাব ধরে রাখা যায়। ত্বকের কোন ক্ষতিও হয় না।

স্ক্যাবার তৈরি করতে- চিনি ১ টেবিলচামচ, আটা ১ টেবিলচামচ, আমন্ডগুঁড়া ১ চা-চামচ ও পরিমাণমতো গ্রিন টি একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। সপ্তাহে দুইদিন স্ক্যাবার ব্যবহার করুন।

রোদে পোড়া দাগ

গ্রিন টি ব্যাগ গরম পানিতে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। পানি ঠান্ডা হলে এতে লেবুর রস ও সামান্য চালের গুঁড়া মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি নিয়মিত লাগালে ত্বকে রোদে পোড়াভাব দূর হবে।