নুরুল হক নুরের সাবেক এক সহকর্মী বলেছেন, সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের ছয় নেতার বি’রুদ্ধে এক তরুণী ধ’র্ষণ ও ধ’র্ষণে সহযোগিতার যে অ’ভিযোগ এনেছেন তার সত্যতা রয়েছে। সংগঠনের ভে’তরে বি’ষয়টি নিয়ে অনেক দিন ধরেই আলোচনা ছিল।

সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের দুই যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর ও রাশেদ খাঁনকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে পাল্টা কমিটির ঘোষণা দেয়া এ টি এম সোহেল এ কথা বলেছেন।সোহেল বলেন, ‘সংগঠনের অভ্যন্তরে কিছু সত্য রয়েছে যা অনেকেই জানে, কিন্তু প্রকাশ করে না।

এর উদাহরণ যদি দেই, তাহলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যে শিক্ষার্থী ধ’র্ষণ ও সহযোগিতার মা’মলা করেছে, তা সত্য জেনেও অনেকে প্রকাশ করে না।‘এমনকি এই ঘ’টনাকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা দাবি করে ধাপাচা’পা দেয়ার চেষ্টা করেছে তারা।’

নুরুল হক নুরদের বি’রুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, আর্থিক অনিয়মের অ’ভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন ছাত্র অধিকার পরিষদের নতুন কমিটির সদস্যস’চিব ইসমাইল সম্রাট।
এই ঘ’টনাটি নিয়ে সংগঠনে অনেক আলোচনা হয়েছে বলেও জানান সোহেল। তিনি বলেন, ‘মামুনকে (ছাত্র অধিকার পরিষদের বহিষ্কৃত আহ্বায়ক হাসান আল মামুন) চা’প দেয়া হলে সে তো নিজেই মে’য়েটিকে বলেছে আ’দালতে যেতে।’

‘তারা (মামুন ও তার সহযোগীরা) ভেবেছিল মে’য়েটি একটি মৌলভী পরিবার থেকে এসেছে। সে এটা নিয়ে হৈ চৈ করবে না।‘ছাত্র অধিকার পরিষদের কাছে মে’য়েটা অনেক আগে থেকে বিচার চেয়ে আসছে। তার সব ঘ’টনা খুলে বলেছে। ন্যায়বিচারের দাবি করেছে। তখন তাকে (বা’দী) বারবার আশ্বাস দেয়া হয়েছিল। কিন্তু সমাধান হয়নি।’

‘মামুনের স’ঙ্গে তাঁর প্রেমের সম্প’র্ক ছিল, এটা আমরা সবাই জানতাম। তাকে খাবার এনে খাওয়াত।এ নিয়ে কথা তোলার পর নুরের মামুন-নুরের সহযোগীদের আ’ক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছিল বলেও জানিয়েছেন সোহেল। বলেন, ‘আমরা যারা সমাধান করতে চেয়েছিলাম, উল্টো আমাদেরকে বলা হয়েছে আমরা ষ’ড়যন্ত্রকারী।’

গত ২০ সেপ্টেম্বর সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনের বি’রুদ্ধে ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ এনে মা’মলা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার বিভাগের এক ছাত্রী। এতে নুরসহ পাঁচ জনের বি’রুদ্ধে আনা হয় সহযোগিতার অ’ভিযোগ।

অ’সুস্থ স্ত্রী’র জন্য আবারো দোয়া ভিক্ষা চাইলেন শামীম ওসমান
অ’সুস্থ স্ত্রী’ সালমা ওসমান লিপির জন্য আবারো নারায়ণগঞ্জ তথা দেশবাসীর কাছে দোয়া ভিক্ষা চেয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান। বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকালে তিনি বলেন, গত তিন মাস ধরে আমি ছাড়া পরিবারের সকল সদস্যই অ’সুস্থ হয়েছেন। করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়েছেন। আমি মনে করি মহান আল্লাহ সুবানাতালা আমাদের পরীক্ষা নিচ্ছেন। আমি সবার দোয়া ভিক্ষা চাই।

গত মাসের মাঝামাঝি সে (লিপি ওসমান) করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়েছিল। এরপর ছে’লে অয়ন ওসমান, তার স্ত্রী’ ও নাতি করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়। পরবর্তীতে আল্লাহর রহমতে ও মানুষের দোয়ায় তারা একে একে সুস্থ্য হয়ে উঠে। কিন্ত গত কয়েকদিন আগে আকষ্মিকভাবে লিপি ওসমান অ’সুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ল্যাবএইড হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়।

বর্তমানে ল্যাবএইড হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন আছেন। এখন আমাদের মানুষের দোয়া দরকার। আল্লাহ মানুষের দোয়া কবুল করেন। আমি আমা’র স্ত্রী’সহ পরিবারের সকল সদস্যের জন্য দোয়া ভিক্ষা চাচ্ছি। পরশুদিন শুক্রবার। জুমআর দিন। পবিত্র এই দিনে আপনাদের কারো না কারো হাতের উছিলায় মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন হয়তো আমা’র স্ত্রী’কে সুস্থ করে তুলবেন।

শামীম ওসমান বলেন, এ পর্যন্ত মানুষের দোয়া ও মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের রহমতে সুস্থ হয়েছেন পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। আমাকেও আপনাদের দোয়ায় আল্লাহ সুবহানাতালা এখন পর্যন্ত সুস্থ্য রেখেছেন। তাই আমি সবার কাছে দোয়া ভিক্ষা চাই।

উল্লেখ্যকরো’না সঙ্কটে নারায়ণগঞ্জের সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ‘মমতাময়ী মা’ উপাধি পেয়েছেন জে’লা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমানের স্ত্রী’ সালমা ওসমান লিপি। করো’নার প্রার্দুভাব শুরু হওয়ার প্রথম থেকেই তিনি কর্মহীন, দু:স্থ ও অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সহায়তা পৌছে দিয়েছেন।

করো’নার ভ’য়বহতায় মানুষের কাছাকাছি যেতেন না পারলেও বিভিন্ন মাধ্যমে অসহায় মানুষের খোঁজ নিয়েছেন। অনেকে তাকে ফোন করেও তাদের অসয়াত্বের কথা বলেছেন। তিনি সাথে সাথে সেই অসহায় মানুষের বাসায় স্বেচ্ছাসেবীর মাধ্যমে সহায়তা দিয়েছেন।

সব শেষে গত মাসে নিজে করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়েও নারায়ণগঞ্জ শহরের বাবুরাইল দেওভোগ এলাকায় সড়ক দুর্ঘ’টনায় গুরুতর আ’হত প্যারালাইজড রোগী কাবিলের বাড়িতে স্বেচ্ছাসেবী পাঠিয়ে আর্থিক সহায়তা দান করেন। এবং নিজে কাবিলের স্ত্রী’ নুপুরের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলে শান্তনা দিয়েছেন।অসহায় খেলোয়ারের পাশে দাঁড়িয়েছেন লিপি ওসমান। তার সহযোগিতায় ওই খেলোয়ার আবারো মাঠে ফিরে এসেছে। এমন অনেক উদাহরন সৃষ্টি করে লিপি ওসমান ‘মমতাময়ী মা’ উপাধি পেয়েছেন।