মহেন্দ্র সিং ধোনি। নামটাই যথেষ্ট। তার পরিচয় জানে না ভারতে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়াই কঠিন। শুধু ভারত কেন, বিশ্বেও ছড়িয়ে রয়েছে তার ভক্ত। তাই তো ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেও তার জনপ্রিয়তায় এতটুকু ভাটা পড়েনি। এমনকী জনপ্রিয়তার নিরিখে বিরাট কোহলি-শচীন তেণ্ডুলকরকেও পিছনে ফেলে দিয়েছেন জোড়া বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক। কিন্তু অবাক কাণ্ড। ধোনির পরিচয় নাকি জানেন না তাঁরই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী!

সম্প্রতি একটি জনসভায় ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস বেশ জোর গলাতেই বলছেন যে ধোনি একজন ফুটবলার। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি মিম ভিডিও। যেখানে বেশ স্পষ্টভাষাতেই রঘুবর দাসকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ফুটবল খেলে গোটা বিশ্বে ঝাড়খণ্ডের নাম উজ্জ্বল করেছেন ধোনি। রাজ্যের ছেলেকে নিয়ে তিনি অত্যন্ত গর্বিত। ভিডিওতে মুখ্যমন্ত্রী বলছেন, ফুটবলে যেভাবে ধোনি গোটা বিশ্বে ঝাড়খণ্ডের নাম উজ্জ্বল করেছে, আমার স্বপ্ন, আমাদের রাজ্যের বাকি বাচ্চারাও একইভাবে গোটা দুনিয়ায় ফুটবল খেলে খ্যাতি পাবে।

ভিডিওটি ভাইরাল হতেই নেটদুনিয়ায় শুরু হয় তুমুল সমালোচনা। মুখ্যমন্ত্রীকে অশিক্ষিত বলে কটাক্ষ করেন অনেকেই। প্রশ্ন ওঠে, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হয়ে কীভাবে এমন মূর্খের মতো মন্তব্য করেন? জনসভায় ভাষণ দেওয়ার আগে অনেকে তাকে হোমওয়ার্ক করার পরামর্শও দিয়েছেন। ক্রিকেটপ্রেমীরা ভালবেসে ধোনিকে রাঁচির রাজপুত্র বলে ডাকেন। বর্তমানে ভারতীয় দলে না থেকেও তিনি সবসময় চর্চায় রয়েছেন। তার অনুরাগীরা চান না, অদূর ভবিষ্যতে ক্রিকেটকে বিদায় জানান ক্যাপ্টেন কুল। যার প্রতিভায় মুগ্ধ গোটা বিশ্ব, সেই ক্রিকেটারকেই নাকি এক ঝটকায় ফুটবলার বানিয়ে দিলেন মু্খ্যমন্ত্রী! সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন