প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ‘নাগিন ডান্স’ করলেন এক শিক্ষিকা। আর নাচের এই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। পরে ওই শিক্ষিকাকে বরখাস্ত করে কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি নাচের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয় আরও দুজনকে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, রাজস্থানের জালোর জেলায় দশ দিন আগে এই নাচের ভিডিওটি ধারণ করা হয়। সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করার পর মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। গতকাল বুধবার ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওর জেরে শিক্ষিকাকে বরখাস্ত করে কর্তৃপক্ষ।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, দুজন শিক্ষিকা ও একজন শিক্ষক প্রশিক্ষণের বিরতি চলাকালে নাগিন ডান্স করে অন্যান্য সহকর্মীদের আনন্দ দিচ্ছেন।

ভিডিওটি দেখার পর জালোরের শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, ‘যে শিক্ষিকা এই নাচের আয়োজন করেছিলেন, তাকে আমরা বরখাস্ত করেছি। বাকি দুজন সদ্য নিযুক্ত হওয়ায় নিয়ম জানেন না বলে তাদের শোকজ নোটিশ দেওয়া হয়েছে। নাচ বা কোনো অ্যাক্টিভিটি আয়োজনে কোনো ক্ষতি নেই, তবে তা শৃঙ্খলার মধ্যে হওয়াই বাঞ্ছনীয়।’

এদিকে ওই শিক্ষিকাকে বরখাস্ত করাকে অনেকেই বিরোধিতা করছেন। এক শিক্ষক বলেন, ‘বিরতির সময় তারা অন্যান্য শিক্ষকদের সঙ্গে আনন্দ করছিলেন। এতে অশ্লীলতা বা ক্ষতির কী আছে? একজন সরকারি কর্মী কী তার সহকর্মীদের সঙ্গে ভালো সময় কাটাতে পারেন না? এটা যুক্তিযুক্ত নয়।’