আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগ জনগণের মধ্যেই আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে। আর নেতিবাচক রাজনীতির কারনে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা দল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, নেতিবাচক রাজনীতির জন্য বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের আরো নেতারা পদত্যাগের অপেক্ষায় রয়েছে। শীঘ্রই তারা বিএনপি ছেড়ে যাবেন। কারণ, যে দলের শীর্ষ নেত্রী-নেতা দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের কারণে আদালত থেকে দন্ডপ্রাপ্ত, বিদেশে পলাতক, সেই দলের প্রতি কারো আস্থা থাকতে পারেনা। বিএনপির প্রতি কোন সুস্থ্য, বিবেকবান মানুষের আস্থা থাকতে পারেনা, এটি ভাল মানুষের কোন জায়গা হতে পারেনা বলেও জানান তিনি।

তিনি আজ বুধবার কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ‘সামাজিক অংশগ্রহণ’ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে হানিফ বলেন, বেগম জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে কথা বলতে পারেন তার চিকিৎসকরা। তারা বলছেন তিনি আগের মতই আছেন, অবস্থার খুব একটা অবনতি ঘটেছে এমন কোন তথ্য মেডিকেল বোর্ড দেয়নি। তারপরেও প্রতিদিন বিএনপি’র নেতারা বলছেন তার স্বাস্থ্য খারাপ।

হানিফ বলেন, বেগম জিয়া ৭৫ বছর বয়সে ৩০ বছর বয়সের মত হাঁটাচলা করবেন এটা ভাবা ঠিক হবে না। বাস্তবতা মেনে নিতে হবে, বয়সের কারণেই তার অনেক অসুখ থাকতে পারে। তবে আমরা চাই তিনি সুস্থ্য হয়ে উঠুন। সরকার বেগম জিয়ার সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করেছে। মেডিকেল বোর্ড প্রয়োজন মনে করলে আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে বলেও জানান তিনি।