মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মুক্তি পেয়েছে শাকিব-মাহির ‘নবাব এলএলবি’, সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন অনন্য মামুন। নবাব এলএলবি টিজার মুক্তির পর থেকেই এই সিনেমা কে নিয়ে চলেছে নানা ধরনের সমালোচনা, অনেকে একে প্রকাশ্যে একটি কপি করা সিমেনা বলে দাবি করেন। অনেকে একে হিন্দি সিনেমা জলি এলএলবির কপি বললেও পরিচালক তা মানতে নারাজ।

সিনেমা হলে নয়, ১৬ ডিসেম্বর রাতে অনলাইন প্লাটফর্ম আই থিয়েটারে মুক্তি পায় শাকিব-মাহির ‘নবাব এলএলবি’। এরপরও ছবিটি নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন অনেক দর্শক, যা নিয়ে মুখ খুলছেন না পরিচালক বা শাকিব খান।

বরং পরিচালকের অভিযোগ অনলাইন প্লাটফর্ম আই থিয়েটারে মুক্তির দিন থেকেই পাইরেসির শিকার হয়েছে এই সিনেমাটি, পাওয়া যাচ্ছে নানা অনলাইন প্লাটফরমে।

পাইরেসি ঠেকাতে আইনের সহায়তা নিয়েছেন তিনি, ২০ ডিসেম্বর সকালে সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগে গিয়ে এই বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

এ বিষয়ে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা অভিযোগ পেয়েছি। সে অনুযায়ী তদন্ত করা হবে। আশা করছি অপরাধীকে শনাক্ত করা যাবে দ্রুতই।’

এ বিষয়ে অনন্য মামুন বলেন, ‘আমি খুব অবাক হয়েছি অনেকেই সিনেমাটি নিয়ে প্রতারণার কথা বলছেন। কিন্তু এটি যে পাইরেসির শিকার হয়েছে তা কেউ বলছেন না। আমি জিডি করেছি। আজ সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ করেছি। তারা মাঠে নেমেছে। আশা করছি দ্রুতই ডিজিটাল চোরকে ধরা যাবে।’

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000