পেঁয়াজ কিনবেন নাকি পেঁয়াজ ছাড়া অন্যভাবে রান্না করবেন, তা নিয়ে সন্দিহান মধ্যবিত্ত। কিন্তু পেঁয়াজ ছাড়া কি আর রান্না জমে? কিন্তু দামের সঙ্গে সত্যি পাল্লা দেওয়া বেশ কঠিন। এই পরিস্থিতিতে বরং বাজারে গিয়ে পেঁয়াজ কেনার ভাবনায় একটু বদল করুন। বাড়িতে টবেই পেঁয়াজ চাষ শুরু করতে পারেন। পদ্ধতি নিয়ে ভাবার প্রয়োজন নেই। আপনার জন্য রইল টিপস।

বাড়িতে পেঁয়াজ চাষের জন্য প্রয়োজন একটি মাঝারি আকারের টবের। একান্ত জায়গার অভাব থাকলে ছোট টবেও কাজ চালানো যেতে পারে। আলাদা একটি পাত্রে বেলে এবং দোআঁশ মাটি মিশিয়ে নিন। এবার টব ভর্তি করে মাটি দিন। বাজার থেকে পেঁয়াজ কিনে আনুন। শিকড় বেরনো এবং শিকড় না বেরনো দু’প্রকার পেঁয়াজই চলবে।

শিকড় না বেরনো পেঁয়াজ হলে তার মুখ এবং পিছনের দিকের সামান্য অংশ কেটে ফেলুন। শিকড় বেরনো পেঁয়াজের ক্ষেত্রে তার প্রয়োজন নেই। এবার টব ভর্তি মাটির মধ্যে আঙুল দিয়ে গর্ত করে ওই পেঁয়াজ ঢুকিয়ে দিন। উপর দিয়ে গুঁড়ো মাটির হালকা আস্তরণ দিতে পারেন। এবার হালকা হাতে অল্প করে জল ছড়িয়ে দিন। পুরো প্রক্রিয়াটি শেষ হলে সূর্যের আলো লাগে এমনই একটি জায়গায় ওই টবটি সরিয়ে রাখুন।

৬ থেকে ১০দিন পর দেখবেন ওই টবে পুঁতে রাখা পেঁয়াজ থেকে পাতা বেরিয়েছে। পেঁয়াজ পাতা খাওয়ার ইচ্ছা হলে তা আপনি কেটে নিতে পারেন। নইলে দেখবেন ধীরে ধীরে পেঁয়াজ পাতা পেকে যাচ্ছে। সবুজ থেকে হলুদ রংয়ের হয়ে যাবে পাতাগুলি।

ওই গাছের গলা শুকিয়ে ভেঙে হেলে পড়লে বুঝতে হবে পেঁয়াজ উত্তোলনের সময় হয়ে গিয়েছে। পেঁয়াজ টবে পোঁতার ১১০-১২০ দিনের মধ্যে তা উত্তোলনের সময় চলে আসে। তাই দেরি না করে আজই বাড়ির টবে পেঁয়াজ গাছ লাগাতে পারেন। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির বাজারে দেখবেন আপনি হবেন সবচেয়ে লাভবান। সংবাদপ্রতিদিন।