যখন মেয়েরা প্রথম ছেলেদের দিকে তাকায়, তখন ছেলেদের শরীরের ঠিক কোন দিক তাদের সবার আগে চোখ যায় জানেন! এই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার জন্য লাইফস্টাইল ম্যানেজমেন্ট সংস্থা ওয়ার্ল্ড অফ আমোর সম্প্রতি একটি সমীক্ষা চালিয়েছিল।

রাস্তাঘাটে চলাফেরার পথে অনেক অচেনা-অজানা পুরুষদের দেখেন মেয়েরা। তাদের মধ্যেই কেউ আবার নিজের কিছু স্পেশাল গুনের জন্য মেয়েদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে ফেলে। আড়চোখে হোক, অথবা সোজাসুজি— সেই স্পেশাল পুরুষির দিকে মেয়েরা তাকাতে বাধ্য হন। কিন্তু জানেন কি মেয়েরা যখন কোনও ছেলের দিকে তাকায়, তখন তারা ছেলেদের শরীরের ঠিক কোন জিনিসটার দিকে আগে তাকায়? লাইফস্টাইল ম্যানেজমেন্ট সংস্থা ওয়ার্ল্ড অফ আমোরের একটি সমীক্ষা জানিয়েছে যে, এমন ১০টি বিষয় আছে, ছেলেদের দিকে তাকানোর সময়ে যে বিষয়গুলোর উপর মেয়েদের সবার আগে আগে নজর যায়। আসুন সেই বিষয়গুলো জেনে নেওয়া যাক :-

১. ছেলেটি ঠিক কোন দিকে তাকিয়ে রয়েছে:
সাধারণত মেয়েরা যখন কোনও অপরিচিত মানুষের দিকে তাকায় তখন তারা তাদের চোখের দিকেই আগে তাকায়। সে ক্ষেত্রে কিন্তু, তারা বুঝতে পারে যে, সে যার দিকে তাকিয়ে আছে সেই মানুষটি ঠিক কোন দিকে তাকিয়ে রয়েছে, বা ঠিক কী দেখছে, সে দিকেও কিন্তু মেয়েরা নজর রাখে। কোনও পুরুষের দৃষ্টি ঠিক কোন দিকে থাকে, সেটার মাধ্যমে কিন্তু তার মানসিকতার ও পরিচয় পাওয়া যায়। যার ফলে সেই সম্পর্কে একটি প্রাথমিক ধারণা পাওয়ার জন্য মেয়েরা ছেলেদের চোখের দিকে তাকায় প্রথমে।

২. ছেলেটি কতটা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন:
মনে রাখবেন যে, মেয়েদের কিন্তু সবসময় পরিচ্ছন্নতা বেশি পছন্দ করে । স্বাভাবিকভাবেই তারা যখন কোনও পুরুষের দিকে তাকায়, তখন তাকে ঠিক যাচাই করে নেয়, ছেলেটি আসলে ঠিক কতটা পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন, তার ড্রেসআপ ঠিক কেমন? কিংবা এটাও তারা ভাবে যে, তার জুতোটা ঠিক সে কতটা পরিষ্কার রাখে— এগুলো দেখেই তারা বুঝে নিতে পারে যে, ছেলেটি আদতে কতটা পার্সোনাল হাইজিনে বিশ্বাস করে!

৩. ছেলেটি কী ধরনের পোশাক পরে রয়েছে:
মানুষের পোশাক, সামাজিক অবস্থান, ব্যক্তিত্ব এবং রুচি— সব কিছুই তার জীবন্ত পরিচয় বহন করে। কোনও পুরুষের পোশাক দেখে মেয়েরা সেই সমস্ত বিষয় সম্পর্কে একটা ছোট্ট ধারণা তৈরি করতে চায়।

৪. ছেলেটির শরীরী ভাষা কেমন:
শরীর, অর্থাৎ বডি ল্যাঙ্গুয়েজ হল মনের আয়না, এবং তা আমরা সবাই জানি। যেমন, কোনও মানুষ যদি নিজের ষাতের মুঠো বন্ধ করে বসে থাকে তাহলে মনে করতে হবে সে গোপনতা বেশি পছন্দ করে। কেউ যদি তার শিরদাঁড়া টানটান করে যে বসে, তাহলে মনে করতে হবে হয়ত সে হয়তো কোনও কারণে উদ্বিগ্ন অথবা উত্তেজিত হয়ে গেছে । কোনও ছেলের বডি ল্যাঙ্গুয়েজের ক্ষেত্রে এই বিষয়গুলিই খতিয়ে দেখে, কারণ তারা মনের অবস্থাটার একটা পূর্ব আভাস পেতে চায়।

৫. ছেলেটি পায়ে কেমন জুতো পড়েছে :-
পোশাকের মতনই , জুতোও যে কোনও মানুষের সম্পর্কে অনেক কথা বলে। তার পাশাপাশি কোনও মানুষের বর্তমান অবস্থা ঠিক কেমন, সে সম্পর্কেও কিন্তু এই জুতো আগে থেকেই একটা ইঙ্গিত দেয়। যেমন ধরুন, আপনি যখন কোনও চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গেছেন, সেই সময় আপনি যেরকম জুতো পড়বেন, এবং যখন আপনি বন্ধুদের সঙ্গে কোনও পার্টিতে যাবেন তখন নিশ্চয়ই একই রকম জুতো পড়বেন না, তাই না? মেয়েরা যে কোনও পুরুষের জুতোর দিকে তাকিয়েই সেটা আগে থেকে আঁচ করতে চায়।

৬. ছেলেটি কতটা মনোযোগী শ্রোতা:
যখন কোনও ছেলে তার বন্ধু বা পরিচিতদের সঙ্গে থাকে, তখন মেয়েটি ওই ছেলেটির দিকে তাকিয়ে খেয়াল করেন যে ছেলেটি কতটা মনোযোগী হয়ে অন্যদের কথা শুনছে। আদৌ অন্যরা যা কথা বলছে, সেটা শোনার মানসিকতা ওই ছেলেটির মধ্যে রয়েছে কি না..! যে মানুষ অন্যদের কথা শুনতে পছন্দ করেনা, সে সাধারণত কখনোই মেয়েদের মন জয় করতে পারে না।

৭. ছেলেটি ঠিক কতটা খরুচে:
ধরুন কোনও শপিং মল বা কোনও মার্কেটে একটি ছেলে কেনাকাটায় ব্যস্ত রয়েছেন, তখনই একটি মেয়ে তার দিকে তাকিয়ে বোঝার চেষ্টা করে যে, সে কতটা টাকা খরচ করছে! তবে সব সময়ে খরুচে ছেলেদেরকেই যে মেয়েরা বেশি পছন্দ করে , তা কিন্তু নয়। আসলে যে ছেলে বুঝেশুনে খরচ করে, তার বিবেচনাবোধ বেশি, অনেক মেয়েদের মনেও কিন্তু এমন ধারণা থাকে।

৮. ছেলেটি অন্যদের সঙ্গে কেমন ব্যবহার করছে সেটাও মেয়েরা দেখে :
কোনও ছেলে তার আশেপাশের বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে ঠিক কেমন ভাবে মিশছে, কী ভাবে সে তাদের সাথে কথা বলছে— সেটা কিন্তু তার মানসিকতার একটা বিরাট বড় পরিচয় দেয়। ছেলেটি তার আশাপাশের মানুষদের সঙ্গে কেমন ব্যবহার করছে, মেয়েটি তার মানসিকতা বোঝার চেষ্টা করে।

৯. ছেলেটি কতটা ঘন ঘন হাসে:
সবসময় মনে রাখবেন যে প্রাণ খুলে হাসতে পারে, তার মনটা কিন্তু অনেকটা বড় হয়— হ্যাঁ এমনই একটা ধারণা প্রচলিত আছে। আবার কথায় কথায় যে হাসে, তার রসবোধ নিশ্চয়ই খুব একটা সূক্ষ্ণ নয়। কোনও ছেলে কতটা কম-বেশি হাসে, সেটার উপরে ভিত্তি করেই মেয়েরা তার সম্পর্কে এমনই কিছু ধারণা গড়ে নিতে চায়।

১০. ছেলেটি ম্যানার্স জানে কি না:
যে ছেলে লিফটের দরজা খুলে যাওয়ার পরে তার পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা মেয়েটিকে ‘লেডিজ ফার্স্ট’ বলে এগিয়ে দেয়, অথবা বাসে কখনও কোনও বয়স্ক মানুষকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে নিজের বসার সিট ছেড়ে দেয়— তাদের প্রতি মেয়েদের সবসময়ই একটা আলাদা আকর্ষণ থাকে। তাই কোনও মেয়ে যখন কোনও ছেলের দিকে তাকায়, তখন সে বুঝে নিতে চায় আদৌ ছেলেটির কোনো সৌজন্যবোধ রয়েছে কি না!