ইতালি সরকারের ২০২০ সালের বাজেট পরিকল্পনায় একবার ব্যবহার উপযোগী প্লাস্টিক ও চিনির ওপর নতুন করের বিধান রাখা হয়েছে। খবর ইউএনবি’র। নতুন এ কর ইতালি সরকারের কোষাগারে আনুমানিক ১৩০ কোটি ইউরো যোগ করবে। সেই সাথে এতে একবার ব্যবহৃত প্লাস্টিকের মোড়কের ব্যবহার কমে যাবে। পাশাপাশি চিনির ব্যবহার কমার ফলে ইতালিয়ানদের স্থূলতা হ্রাস ও স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটবে।

নতুন কর প্রতিকেজি প্লাস্টিকের দাম আরও এক ইউরো বাড়িয়ে দেবে। এ জন্য শেষ পর্যন্ত ভোক্তাদের ব্যয় বাড়লেও উদ্যোগটির সমর্থকরা বলছেন, তার আশা করছেন যে এর ফলে পণ্য উৎপাদকরা মোড়কে প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাবে এবং এ কাজে জৈবপ্লাস্টিক, পুনরায় ব্যবহার যোগ্য জিনিস বা অ-প্লাস্টিক ব্যবহার করবে।

ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন প্রতি বছর মোড়কের কাজে কমপক্ষে ১ কোটি টন প্লাস্টিক পুনরায় ব্যবহারের যে পরিকল্পনা নিয়েছে তার অংশ হিসেবে ইতালির উদ্যোগটি নেয়া হয়েছে।

পরিবেশ ও স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলো নতুন এ করের জন্য চাপ সৃষ্টি করলেও কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান বলেছে, এর ফলে তাদের উৎপাদন বাধাগ্রস্ত হবে। যেমন- ইতালির দক্ষিণাঞ্চলের দ্বীপ সিসিলির কোকাকোলা কোম্পানি তাদের চিনি মিশ্রিত পানীয় ও বোতলের কারণে উভয় করের ফাঁদে পড়বে।

ইতালির ২০২০ সালের বাজেট পরিকল্পনা চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই চূড়ান্ত হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও

                         

 

আরও সংবাদ