টিভি দেখতে বসলেই লক্ষ করবেন, যে সব বিজ্ঞাপন তাতে দেখানো হয় তাদের মধ্যে এক তৃতীয়াংশই ফেয়ারনেস ক্রিম নিয়ে। তারা এসব বিজ্ঞাপনে এমন এক ভাব ধরে যেন সবার মনে হয় যে, তার রঙ যদি ফর্সা না হয় তাহলে জিবনে সে কোন কিছুই করতে সক্ষম হবেন না।

এই সব চটকদার বিজ্ঞাপনের ফাঁদে আমরা পা দিয়ে আমাদের নিজেদের জন্য কতবড় বিপদ নিজের অজান্তে ডেকে আনছি তা আমরা বুঝতে পারি না।

ত্বকের রঙ ফর্সা করার জন্য অনেকে অনেক ধরনের ক্রিম, জেল ব্যাবহার করে থাকেন, এর মধ্যে নামী দামি ব্র্যান্ড থেকে লোকাল ব্র্যান্ড ও অন্তর্ভুক্ত। আপনি যেইটায় ব্যাবহার করেন না কেন, এগুলোর কোনটিই আপনার জন্য ভালো নয়।

এই সব প্রোডাক্ট গুলোতে এমন সব ক্যেমিক্যাল ব্যাবহার যা হয়তো কিছু সময়ের জন্য আপনার ত্বকের রঙ ফর্সা করে কিন্তু আপনার ত্বকের উপর অনেক খারাপ প্রভাবও ফেলে।

যে কোন ধরনের রঙ ফরসাকারি ক্রিমে মার্কারি, লেড, স্টেরয়েড, প্রিজার্ভেটিভ ছাড়াও নানা ধরনের রাসায়ানিক থাকে যার জন্য আপনার ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে। এখন কথা হচ্ছে যে, আপনি কিভাবে বুঝবেন যে আপনার ক্রিমে এসব আছে কিনা নাই।

কোন ক্রিম ব্যাবহারের পর যদি আপনার মুখ ঘেমে উঠে বা জ্বালা করে বা কিছুদিন ব্যাবহারের পর আপনার ত্বকে র‍্যাশ, চুলকানি, সাদা বা কালো ছোপ ছোপ দাগ দেখা যায় তাহলে আপনাকে বুঝতে হবে যে আপনার ক্রিমে এ সব ক্যেমিক্যাল আছে।

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000