অক্ষয় কুমারের প্রোডাকশনের হাত ধরে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন কিয়ারা আদভানী। ‘ফাগলি’ নামের সেই ছবি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। সেই কিয়ারা আদভানীই বলিউডে দুই বছর পর ফিরেই ১০০ কোটির ক্লাবে নাম লেখালেন। সৌজন্যে ‘এম এস ধোনি- দ্য আনটোল্ড স্টোরি’। সম্প্রতি তাঁর আরও একটি ছবি ‘কবীর সিং’ এক্কেবারে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছেছে। করেছে বিপুল ব্যবসা। আর সেই কিয়ারা আদভানীরই আড়াই মাসের ব্যবধানে চার-চারটি ছবি মুক্তি পেতে চলেছে। যা একপ্রকার রেকর্ড বলা যেতে পারে। চোখ রাখা যাক সেদিকেই।

এম এস ধোনি- দ্য আনটোল্ড স্টোরি
‘এম এস ধোনি- দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ হিট হয়েছিল ঠিকই। ১০০ কোটির ক্লাবে নামও লিখিয়েছিল। কিন্তু সেই ছবিতে কিয়ারা যেন সবার নজর এড়িয়েই গিয়েছিলেন। দর্শকদের মনের গহীন কোণে জায়গা করে নিয়েছিল সুশান্ত সিং রাজপুতের পারফরম্যান্স।

তু চিজ বড়ি হ্যয় মাস্ত মাস্ত!
আব্বাস-মস্তান পরিচালিত ‘মেশিন’ ছবিটিও মুখ থুবড়ে পড়েছিল বক্স অফিসে। তবে সেই ছবির আইটেম নম্বর ‘তু চিজ বড়ি হ্যয় মস্ত মস্ত’ গানে দর্শকদের নজর কেড়েছিলেন কিয়ারা আডবাণী।

লাস্ট স্টোরিজ
সোজা ঢুকে পড়লেন করণ জোহরের ব্রিগেডে। নেটফ্লিক্স-এর ‘লাস্ট স্টোরিজ’-এ জন্য করণ জোহরের পরিচালনায় যেন ধামাকা দেখালেন কিয়ারা। ভাইব্রেটার দিয়ে তাঁর স্বমেহনের দৃশ্য মন জিতে নেয় দর্শকদের। ফ্যানবেসও তৈরি হতে শুরু করে কিয়ারা আদভানীর।

কলঙ্ক
ব্যাক টু ব্যাক দুটি তেলুগু ছবি ‘ভারত’ এবং ‘আনে নেনু’ ছবিতেও তুখড় অভিনয় করেন কিয়ারা। আর তারপরে তাঁকে ‘কলঙ্ক’ ছবিতেও দেখা যায়। সে ছবিতে সামান্য ক্যামিও দর্শকদের বেশ পছন্দ হয়।

কবীর সিংয়ের ‘প্রীতি’!
তারপরই আসে কিয়ারার বহু প্রতিক্ষিত ছবি ‘কবীর সিং’। তাঁর চরিত্র ‘প্রীতি’ দর্শকদের মনে পাকাপাকি ভাবে জায়গা করে নেয়। ২০১৯ সালের শুরুটা বেশ জমজমাটই করেছিলেন কিয়ারা।

গুড নিউজ
২০১৯ সালের শেষটিও বেশ চমকদার ভাবে পারফর্ম করেন এই অভিনেত্রী। করিনা কাপুর, অক্ষয় কুমার এবং দিলজিৎ দোসাঞ্জের সঙ্গে তাঁর ছবি আসে ‘গুড নিউজ’। সে ছবিতেও দাপট দেখান আদভানী। ব্যাপক হিট হয় সেই ছবি।

নতুন প্রজেক্ট
২০২০ সালের মার্চ থেকে মে মাসের মধ্যেই কিয়ারা আদভানীর চারটি ছবি মুক্তি পেতে চলেছে। আর এই চারটিই বিগ বাজেটের এবং ছবিগুলির বিষয়বস্তুও এক্কেবারে অন্যধারার।

লক্ষ্মী বোম্ব
আগামী রমজান ঈদেই আসবে অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ‘লক্ষ্মী বোম্ব’। ছবিটি আদ্যপান্ত হরর কমেডি। দুবাইতে সম্প্রতি কিয়ারা এবং অক্ষয় কুমার কে দেখাও গিয়েছে ছবির শুটিং করতে।

ইন্দু কি জাওয়ানি
‘বোম্ব’ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার দুই সপ্তাহ পরই আর একটি ছবি মুক্তি পাবে কিয়ারা আদভানীর। বাঙালি পরিচালক এবং চিত্রনাট্যকার আবির সেনগুপ্তর সেই ছবি ‘ইন্দু কি জাওয়ানি’। অনলাইন ডেটিংয়ের খপ্পড়ে পড়ে গাজিয়াবাদের একটি মেয়ের কী সংকটজনক অবস্থা হয়- তা নিয়েই এই ছবি।

শেরশাহ
তার ঠিক হাতেগোনা একমাস পরেই আসবে ‘শেরশাহ’। শেরশাহের প্রেমিকার চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে কিয়ারা আদভানীকে। করণ জোহরের কো-প্রোডাকশনের এই ছবিটি ১৯৯৯ সালের কার্গিল যুদ্ধ নিয়ে। কিয়ারা আদভানীর সঙ্গে এই ছবিতে রোম্যান্স করতে দেখা যাবে সিদ্ধার্থ মালহোত্রাকে। সিদ্ধার্থের জন্মদিনেই মুক্তি পাবে এই ছবি।

ভুল ভুলাইয়া টু
৩১ জুলাই জন্মদিন কিয়ারা আদভানীর। সেই দিন তাঁর অভিনীত আর একটি ছবি মুক্তি পাবে। আর সেই ছবি হল ‘ভুল ভুলাইয়া টু’। এই ‘ভুল ভুলাইয়া’ ফ্রাঞ্চাইজির প্রথম ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ২০০৭ সালে। তার ঠিক ১৩ বছর পরে আসবে পার্ট টু। পরিচালনা করছেন অনীস বাজমি। ছবিতে কিয়ারার সঙ্গে দেখা যাবে কার্তিক আরিয়ানকে।

ব্যাক টু ব্যাক রিলিজ
এই প্রথম নয়। এর আগেও এমনতর রেকর্ড দেখেছে বলিউড। কখনও কারিশ্মা, কাজল, রাবিনা, মাধুরীদের ব্যাক টু ব্যাক ছবি। কখনও আবার আনুষ্কা, দীপিকাদের পরপর ছবি মুক্তি পেয়েছে।

কারিশ্মার চমক
১৯৯৬ সালে ঠিক এরকম ভাবেই রেকর্ড করেছিলেন কারিশ্মা কাপুর। সে বার তাঁর দশটি ছবি মুক্তি পেয়েছিল একই বছরে।

নজির গড়েছিলেন আনুষ্কাও
২০১৫ সালে রেকর্ড করেছিলেন আনুষ্কা শার্মাও। ছয় মাসের ব্যবধানে আনুষ্কার চারটি ছবি পরপর মুক্তি পেয়েছিল। ডিসেম্বর ২০১৪ সালে ‘পিকে’, মার্চ ২০১৫-তে ‘এনএইচ টেন’, মে মাসে ‘বম্বে ভেলভেট’ এবং জুনে ‘দিল ধড়কনে দো’।

চমকের নাম কিয়ারা! সকলকেই ছাপিয়ে গেলেন!
কিয়ারা আদভানী যেন এঁদের সকলকেই ছাপিয়ে গেলেন একলাফে। প্রায় ৭৫ দিনের ব্যবধানে তাঁর চারটি ছবি মুক্তি পেতে চলেছে। যা এককথায় অভাবনীয়।

সূত্র: এই সময়