বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ইলিশ পাওয়া যায়। তবে বাংলাদেশের ইলিশের স্বাদ বিশ্বের আর কোনো জায়গার সঙ্গে তুলনা করা যায় না। এজন্যই বাংলাদেশের ইলিশ বিশ্বসেরা। বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের মানুষ, বিশেষ করে বাঙালিরা সারাবছর পদ্মার ইলিশের আশায় বসে থাকে। এবছর ভারতে এক হাজার ৪৭৫ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানি করছে বাংলাদেশ। যে কারণে ওপারের মানুষ পাচ্ছে বাংলাদেশের ইলিশের স্বাদ। প্রখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিনও তার ব্যতিক্রম নন।

ইলিশ খাওয়ার খবর জানিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে তসলিমা লিখেছেন, ‘আজ সন্ধ্যেয় পদ্মার ইলিশ খেলাম।  অমৃত। মাখনের মতো নরম,  আর অবর্ণনীয় সুঘ্রাণ এবং  স্বাদ।

পৃথিবী ঘুরে ঘুরে মিঠে পানি, নোনা পানি, বিল হাওড় পুকুর, নদী সমুদ্দুর — কত কিছুর মাছ খেয়েছি!  ইলিশকে টেক্কা দেয় কোনও মাছ নেই। বাংলাদেশের মানুষ নষ্ট হয়ে গেছে। ইলিশ হয়নি। পদ্মা আমার মা। পদ্মা বেঁচে থেকো।’

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবার নয়জন রপ্তানিকারককে মোট এক হাজার ৪৭৫ টন ইলিশ ভারতে পাঠানোর অনুমতি দিয়েছে। প্রতিকেজি ১০ মার্কিন ডলার দরে মোট এক লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার মূল্যের ইলিশ মাছ ভারতে রপ্তানি করা হবে।

এ বছর ভারতে মোট এক হাজার ৪৭৫ মেট্রিক টন ইলিশ মাছ ভারতে রপ্তানি করা হবে। প্রতি কেজি ১০ ডলার মূল্যে শুল্কমুক্ত সুবিধায় এ ইলিশ ভারতে রপ্তানি হচ্ছে।

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000