দুই দেশের ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফরাও বলছেন, দিল্লির এই আবহাওয়ায় খেলা সম্ভব নয়। সে তালিকায় গৌতম গম্ভীর থেকে শুরু করে রবিচন্দ্রন অশ্বিনও আছেন। বছরের এ সময়টায় প্রতিবারই কথা হয়।

এবারের অবস্থাটা আগের চেয়েও খারাপ। ভারতের অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন টুইট করেছেন, দিল্লির আবহাওয়ার মান খুবই ভয়াবহ। অক্সিজেন পৃথিবীতে মানুষের সবচেয়ে মৌলিক চাহিদা। একটা সংকটাপন্ন অবস্থা চলছে।

ক্রিকেট সমর্থকেরাও তাদের হতাশা লুকাতে পারেননি। কিউআইয়ের মানদণ্ড অনুযায়ী, দিল্লির বাতাসে দূষণের মাত্রা এতটাই ছাড়িয়েছে যে শ্বাসকষ্ট ও অন্যান্য শারীরিক অসুস্থতার ভুগতে পারেন খেলোয়াড়েরা। সমস্যাটা যে শুধু খেলোয়াড়দেরই নয়, খেলা দেখতে আসা সমর্থকদেরও।

ক্ষুব্ধ হয়ে সে বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন সমর্থকেরা। নিতিন নারায়ণ নামে এক সমর্থক টুইট করেছেন ম্যাচটি সমর্থকদের জন্য হুমকিস্বরূপ, পাগলামো বিষয়। ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচটি শুধু খেলোয়াড়দের জন্যই হুমকিস্বরূপ নয়, সমর্থকদের জন্যও হুমকি।

মৈত্রী জৈন নামের এক সমর্থক এতে সৌরভ গাঙ্গুলীর দোষ দেখছেন, লজ্জা হওয়া উচিত গাঙ্গুলীর, এ ম্যাচ বাতিল কর। বিশাল নামের এক সমর্থক বলেন, দিল্লির এত দূষণের মাঝে ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন অপরাধ এবং খেলার জগতে কালো দাগ।

এ সংক্রান্ত আরও

                         

 

আরও সংবাদ