দেশি গার্ল খ্যাত বলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বর্তমানে স্বামী নিক জোনাসের সঙ্গে কোয়ারেন্টাইনে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে গৃহবন্দি।

সেখানে বসেই মুম্বাইয়ের একটি গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। আলাপচারিতায় প্রয়াত বাবা অশোক চোপড়াকে নিয়ে মুখ খুলেছেন।

তিনি বলেন, ‘বাবা চাইতেন না আমি শরীরের সঙ্গে লেগে থাকা টাইট পোশাক পরি।’

নিজের বক্তব্যকে স্পষ্ট করে তুলে ধরেছেন প্রিয়াঙ্কা। জানিয়েছেন, তিনি ১২ বছর বয়সে আমেরিকা যান। ‘তখন আমি বাচ্চা মেয়ে। আমেরিকা থেকে যখন ফিরি ১৬ বছর। সম্পূর্ণ নারী। বাবা আমায় দেখে কী করবেন ভেবেই পাচ্ছিলেন না। তারপর এই হুকুম জারি করেন’- যোগ করেন এই অভিনেত্রী।

প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়া এ প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে তার বক্তব্য জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তার মেয়ে আমেরিকা থেকে এসে আঁটোসাঁটো পাশ্চাত্য পোশাক পরতে আরম্ভ করে। তারা তখন রায়বরেলিতে থাকতেন। সেখানকার পরিবেশে এই পোশাক বেমানান ছিল। তাই প্রিয়াঙ্কার বাবা তাকে ওরকম পোশাক পরতে বারণ করে। প্রিয়াঙ্কা সেটা মেনেও নিয়েছিল।

প্রিয়াঙ্কা বাবা সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানান, দেশে ফেরার পর তাকে স্কুলের ছেলেরা ‘ফলো’ করত। সেই দেখেই তার বাবা অমন পোশাক পরতে বারণ করেন।

তিনি আরও বলেন, ‘বাবা বলত, তুমি ভালো মন্দ ভুল ঠিক যাই কর না কেন আমায় এসে বলবে। আমি সেগুলো ঠিক করে দেব। তুমি ভালো না খারাপ বিচার করব না। আমি তো তোমার টিমের লোক।’