নিজ বাড়ির পাশের ডোবায় থেকে পাওয়া গেল ১৮ মাস বয়সী শিশুর লাশ। ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনার মদনের পল্লীতে। শিশুটি মদন উপজেলার কাইটাইল গ্রামের রাসেল মিয়ার ছেলে। 

পরিবার সূত্রে জানা যায় যে, ঘটনার দিন শিশুকে তার মা সকালের নাস্তা করানোর পরে, শীতের জামা পড়িয়ে বাড়ির সাথে লাগানো বারান্দায় খেলতে পাঠান। প্রথমে তাকে অন্য শিশুদের সঙ্গে উঠানে খেলা করতে দেখা গেলেও, কিছুক্ষণ পর তাকে আর সেখানে পাওয়া যায় না।

অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার লাশ বাড়ির পাশের ডোবায় ভেসে থাকতে দেখা যায়। পরে তাকে মদন হাসপাতালে নিয়ে এলে সেখানের জরুরি বিভাগের সেই সময়ের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার কাজী বুশরা আমীনা শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করে জানান যে শিশুটি পানিতে ডুবে মারা গেছে।

মদন থানার এসআই আলমগীর হোসেন পরবর্তীতে এই তথ্যটি নিশ্চিত করেন।