ত’থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, না’রী নি’র্যাতন-ধ’র্ষণের সাথে যারাই যুক্ত থাকুক, যে পরিচয়ই ব্যবহার করুক না কেন, তাদের দৃষ্টান্তমূ’লক শা’স্তি দিতে স’রকার বদ্ধপরিকর।

স’চিবালয়ে ত’থ্য ম’ন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে তানিয়া সুলতানা হ্যাপি রচিত ‘আমি হবো আগামী দিনের শেখ হাসিনা’ শি’শুতোষ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তিনি।

এসময় বিএনপি’র মন্তব্য ‘স’রকারের জবাবদিহিতার অভাবে দেশে খু’ন-ধ’র্ষণ বাড়ছে’ এর প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

ত’থ্য স’চিব কামরুন নাহার অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে এবং গ্রন্থ রচয়িতা তানিয়া সুলতানা বই পরিচিতি বক্তব্য রাখেন।

ড. হাছান বলেন, ‘এ ধরণের অ’পকর্মের সাথে যারা যুক্ত, তারা দুষ্কৃতিকারী, তাদের কোনো অন্য পরিচয় থাকতে পারে না। এ ধরণের দুষ্কৃতিকারীদের ক’ঠোর হস্তে দ’মন করার জন্য স’রকার বদ্ধপরিকর। ইতিপূর্বে এ ধরণের ঘ’টনায় অনেক দৃষ্টান্তমূ’লক শা’স্তি হয়েছে।’

এ ধরণের আগেও ঘটতো, কিন্তু আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের এমন ব্যাপকতা না থাকায় অনেক ঘ’টনাই আড়ালে থেকেছে’ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এখন বেশিরভাগ ঘ’টনা আড়ালে থাকে না, প্রায় সব ঘ’টনাই প্রকাশ্যে আসে এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যারা না’রী নি’র্যাতন-ধ’র্ষণের বি’রুদ্ধে সোচ্চার, এই বি’ষয়গুলো যারা তুলে ধরছেন, তাদেরকে ধ’ন্যবাদ। এতে করে স’রকারের পক্ষ থেকে এ ধরণের অ’পকর্ম যারা ঘটাচ্ছে তাদের বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া সহজতর হচ্ছে।

এ ধরণের ঘ’টনা নিয়ে রাজনীতি করার কোনো অবকাশ নেই, কিন্তু এগুলোকে রাজনৈতিক রূপ দেয়ার জন্য মাঝেমধ্যেই বিএনপি’র পক্ষ থেকে অ’পচেষ্টা চা’লানো হয় উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এই বিএনপিই দলীয়ভাবে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশে না’রী ধ’র্ষণ করেছে। ২০০১ সালের পর ৮ বছরের শি’শুকে, অ’ন্তঃসত্ত্বা ম’হিলাকে এমনকি নৌকায় ভোট দেয়ার অ’পরাধে পুরো গ্রাম অ’বরুদ্ধ করে সেখানকার ম’হিলাদের ধ’র্ষণ করা হয়েছে। সেই দুঃসহ স্মৃ’তি এখনো অনেকে বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছে। সুতরাং যারা দলীয়ভাবে এ ধরনের অ’পকর্ম করেছে এবং এর বি’রুদ্ধে দলীয়ভাবে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করে নাই, তাদের এ নিয়ে কথা বলার কতটুকু নৈতিক অধিকার আছে, সেটিই বড় প্রশ্ন।

মন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপির যুগ্ম মহাস’চিব রিজভী আহমেদ বলেছেন, মানুষের কথা বলার অধিকার নেই। অথচ তারা সকালে একবার, দুপুরে একবার, আবার বিকেলে আরো একবার স’রকারের বি’রুদ্ধে বি’ষোদগার করে। মির্জা ফখরুল সাহেব বললেন, তার সাথে প্রতিযোগিতা দিয়ে রিজভী সাহেব বা আরো দু-একজন নেতা সকাল-বিকেল-দুপুর বি’ষোদগার করে আর বলেন, আমাদের কথা বলার অধিকার নেই, যা হাস্যকর।

এসময় ‘আমি হবো আগামী দিনের শেখ হাসিনা’ শি’শুতোষ গ্রন্থ রচয়িতাকে ধ’ন্যবাদ জানিয়ে ত’থ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, শি’শুরাই আমাদের জাতির ভবি’ষ্যৎ এবং আজকের এই দিনে প্রধানমন্ত্রী শি’শু দিবসের উদ্বোধ’ন করেছেন, সেদিন এ গ্রন্থের যাত্রা শুরুটি তাৎপর্যপূর্ণ।

তিনি বলেন, ‘আমাদের উদ্দেশ্য বস্তুগত উন্নয়নের পাশাপাশি, মানুষের আত্মিক উন্নয়নসমৃদ্ধ একটি উন্নত জাতি গঠন। সেজন্য মানুষের মধ্যে মমত্ববোধ, দেশাত্মবোধ, মূ’ল্যবোধ এগুলোর সমন্বয় ঘটাতে হয় এবং সেটি শি’শু ব’য়সেই করতে হয়। আর সেজন্য এসকল গুণে গুণান্বিতদের জীবন কাহিনী যদি শি’শুরা পড়তে পারে, জানতে পারে তাহলে উন্নত জীবন গঠনে সেটি অত্যন্ত সহায়ক হয়। আর তেমনি একজন মানুষ আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা, যিনি শৈশব থেকে সমস্ত প্রতিকূলতার মধ্যে তার জীবনকে আজকে বিশ্ব নেতৃত্বের পর্যায়ে নিয়ে গেছেন।’

ত’থ্যস’চিব কামরুন নাহার বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়ন, অগ্রগতি ও না’রী ক্ষ’মতায়নে পৃথিবীর সামনে উদাহরণ সৃষ্টি করেছে। তার জীবন ও কর্ম আমাদের শি’শু-কিশোরসহ সকলের জন্য অনুসরণীয়।’

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000