বাবার শখ তার ছেলে রাজা-বাদশাদের মতোই হাতিতে চড়ে বিয়ে করতে যাবে। সঙ্গে থাকবে ঘোড়া, মহিষ ও গরুর গাড়ির বহর। বরযাত্রী যাবে তাতে। যে ভাবনা সেই কাজ। পরিকল্পনা অনুযায়ী ঠিক সেভাবেই ছেলের বিয়ে দিলেন স্থানীয় বিএনপি নেতা ময়নাল হক। করোনাকালে এই বাদশাহী বিয়ে নিয়ে এলাকায় চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা।

জানা যায়, মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের গাঁড়াডোব গ্রামের মুন্সিপাড়া এলাকার বিএনপি নেতা ময়নাল হকের ছেলে তুলিপ হোসেনের সঙ্গে মেহেরপুর সদর উপজেলার মদনাডাঙ্গা গ্রামের সানজিদা আক্তার শাওনের বিয়ে হয়েছে।

শুক্রবার (২০ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গাংনী উপজেলার গাঁড়াডোব গ্রামের মুন্সিপাড়া থেকে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করতে যান বর। সঙ্গে বরযাত্রীদের জন্য ছিল কয়েকটি ঘোড়া, গরু ও মহিষের গাড়ি। বাদশাহী কায়দার এ বিয়ের আয়োজন দেখতে রাস্তার দু’পাশে উৎসুক জনতার ভিড় জমে।

পরে বর তুলিপ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, সবাই ব্যতিক্রম কিছু করতে চায়। সেই ব্যতিক্রম চিন্তা-ভাবনা থেকেই পারিবারিকভাবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমার বাবা। বাবার শখ পূরণের জন্য এভাবে বিয়ে করা।’

বরের বাবা ময়নাল হক জানান, নিজের বহুদিনের শখ পূরণের জন্যই এ ধরনের আয়োজন করা হয়েছে। অল্পসংখ্যক লোকজন নিয়ে স্বল্প পরিসরে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।

বর্তমানে সবকিছুতে আধুনিকতার ছোঁয়া থাকলেও এ ব্যতিক্রমধর্মী বিয়ে পুরাতন ঐতিহ্যকে বারবার স্মরণ করাবে বলে জানান তিনি।

এদিকে করোনাকালে এমন আড়ম্বরপূর্ণ বিয়ের খবর বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ার পর শুরু হযেছে নানা ধরনের আলোচনা-সমালোচনা। অনেকে বলছেন করোনা মহামারি পরিস্থিতির মধ্যে এ ধরনের আয়োজন ঠিক হয়নি।

0000

আজকের জনপ্রিয়

0000