মাস্ক না পরে রাস্তায় বের হলেই তাদের থামিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দিচ্ছে চীনের টহল পুলিশ। সেই সঙ্গে বলা হচ্ছে, বাড়ি গিয়ে আগে মাস্ক পরুন, তার পরে বের হোন।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জেরে সে দেশে ফেব্রুয়ারিতে কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু না করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রকোপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত স্কুল চালু করা উচিত নয়।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার কারণে সঙ্কট দেখা দিয়েছে। বেশি সংখ্যক রোগী নিয়ে বিপাকে পড়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, নিরলসভাবে কাজ করে যেতে হচ্ছে চিকিৎসক ও নার্সদের। একটানা কাজের ফলে শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে তাদের। এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সে দেশের ডাক্তার ও নার্সদের কিছু ছবি ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাল হয়ে গেছে।

সেসব ছবিতে দেখা যায়, নার্স ও চিকিৎসকরা দীর্ঘ সময় ধরে মাস্ক পরে থাকার কারণে মুখে এক ধরনের দাগ পড়ে গেছে। অনেকের চোখের নিচে কালচে দাগ পড়েছে। আবার কারো চোখের চারপাশ ফুলে গেছে।

এখন পর্যন্ত চীনে পাঁচশ ৬৩ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে এবং ২৮ হাজার ১৮ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে।

সূত্র : গার্ডিয়ান।