ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রমেশচন্দ্র মজুমদার মিলনায়তনে ‘মৈমনসিংহ গীতিকা আবিষ্কারের শতবর্ষ এবং দীনেশচন্দ্র সেন কর্তৃক প্রকাশের আসন্ন শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে’ এক আলোচনা সভা এবং সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। শুক্রবার (১৭জানুয়ারি) লিটলম্যাগ চারবাকের সহযোগিতায় মৈমনসিংহ গীতিকা শতবর্ষ উদযাপন জাতীয় কমিটির উদ্যোগে অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে মৈমনসিংহ গীতিকার ওপর শিক্ষা ও গবেষণায় অবদান রাখায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আজিজুল হক, বিশ্বব্যাপী বঙ্গবিদ্যাকে সাংগঠনিকভাবে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনায় অবদানে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও আন্তর্জাতিক বঙ্গবিদ্যা সোসাইটির জেনারেল সেক্রেটারি ড. অমিতাভ চক্রবর্ত্তী এবং কলকাতার আচার্য্য দীনেশ চন্দ্র সেনরিসার্চ সোসাইটি কলকাতার সম্পাদক অধ্যাপক দেবকন্যা সেনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক মতিউর রহমান গাজ্জালী, মুল প্রবন্ধ পাঠ করেন ড. হালিমদাদ খান। মূল প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করেন সাংবাদিক সৈয়দ লুৎফুল হক, শিল্পী অরূপরাহী, প্রাবন্ধিক ফয়েজ আলম, কবি ও প্রাবন্ধিক মজিদ মাহমুদ, ড. চিন্ময়মুৎসুদ্দি, কবি রোকসানা গুলশান, ছড়াকার আনজীর লিটন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ড. সেলুবাসিত।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তারা মৈমনসিংহ গীতিকা বাংলাদেশের লোক ভাষা ও লোক সাহিত্যের বিশেষ ঐতিহ্যে হিসাবে বিবেচনা করেন। শতবর্ষের এই লোক সাহিত্যকে নিয়ে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে আরও গবেষণা ও অনুসন্ধানের জন্য বক্তারা বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেন।