বিগ বস তারকা সানা খান, কয়েক মাস আগেই হটাত করে বলিউডের রঙিন দুনিয়া ত্যাগ করার ঘোষণা দেন, এরপর থেকেই ধর্মের দিকে ঝুকে পরেন তিনি। প্রাক্তন প্রেমিক মেলভিন লুইসের সাথে সম্পর্কের ফাটল ধরার পর থেকে বলিউড থেকে সরে আসতে শুরু করেন তিনি। এমনকি প্রেমে তিনি কিভাবে প্রতারিত হয়েছিলে তা নিয়েও মুখ খলেন তিনি।

তারপর গতমাসে হুট করেই মুফতি আনাসকে বিয়ে করেন তিনি। মুফতি আনাসের সাথে তার পরিচয় হয় এক বন্ধুর মাধ্যমে। মুফতি আনাস একজন ইসলামি চিন্তাবিদ ও পেষায় একজন ব্যাবসায়ি। তিনি জন্মসুত্রে গুজরাটের বাসিন্দা।

বিয়ের পরে থকে সানা তাকে নিয়ে নানা বিষয়ে কথা বললেও তিনি কখনো কোন কিছুই বলেলনি, তবে এইবার তিনি সানা ও তাদের বিয়ে নিয়ে কথা বলেছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মুফতি আনাস জানান যে তিনি কখনোই সানাকে নির্দিষ্টভাবে জীবনযাপনের জন্য বাধ্য করেন নি। গত ছয় মাস আগে যখন ইনস্টাগ্রামে সানা জানিয়েছিলেন তিনি হিজাব পরবেন, তখন তিনি তা খুব বেশি আমলে নেননি।

কিন্তু তিনি ভেবেছিলেন, সানাকে কিছুটা সময় দেয়া উচিত। তবে ও হঠাৎই বিনোদন দুনিয়া ছাড়ার ঘোষণা করে দিলে, এতে তিনিও কিছুটা হতবাক হয়েছিলেন।

আনাস সাঈদ আরও বলেন যে তিনি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করেছিলেন যেন তিনি সানাকে বিয়ে করতে পারেন।

তার মতে আধ্যাত্মিক, ক্ষমাশীল এবং স্বচ্ছ হৃদয়ের মানুষ। তিনি সর্বদা এমন একটি মেয়েকে চেয়েছিলেন যে তার পরিপূরক হবে।