উত্তর আন্দামান সাগরে তৈরি হওয়া লঘুচাপটি নিম্নচাপে রূপ নিয়েছে।

গতকাল রাত ৯টায় এর অবস্থান ছিল পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায়। এটি আরো ঘনীভূত হয়ে পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।

নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপে রূপ নিতে পারে। তবে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা নেই।

নিম্নচাপটি আজ সোমবার (১২ অক্টোবর) স্থলভাগ অতিক্রম করতে পারে। এর প্রভাবে এই সময় প্রবল বৃষ্টিপাত হবে। আবহাওয়া অফিস এমন পূর্বাভাস দিয়েছে।

আবহাওয়া অফিসের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, গত শুক্রবার সকালে উত্তর আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হয়।

পরদিন শনিবার সেটি সুস্পষ্ট লঘুচাপে রূপ নেয়। আর গতকাল তা নিম্নচাপে পরিণত হয়।

নিম্নচাপের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন এলাকায় হালকা থেকে মাঝারি মাত্রার বৃষ্টিপাত হতে পারে। নিম্নচাপের কারণে চারটি সমুদ্রবন্দরকে এক নম্বর দূরবর্তী সংকেত এবং নদীবন্দরে এক নম্বর সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

গতকাল আবহাওয়া অফিসের এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়া আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের কাছে সাগর উত্তাল রয়েছে।

নিম্নচাপের প্রভাবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।