রাত জাগা একটি মারাত্মক সমস্যা। কেননা রাত জেগে থাকলে শরীরের ভারসাম্য থাকে না। যারা দীর্ঘদিন রাত জেগে থাকেন, তারা অনেক ক্ষতিকর রোগের সম্মুখীন হোন। এমনকি এটি অল্প বয়সে মৃত্যুর কারণ পর্যন্ত হতে পারে।

আমাদের শরীরকে স্বাভাবিক ও ভালো রাখতে, নিয়মিত ও সময়মত ঘুম, আহার ও বিশ্রামের দরকার হয়। কিন্তু আমরা যখন রাত জাগি তখন পর্যাপ্ত ঘুম হয় না। কারণ, রাত জাগলেও আমাদের ঠিকই তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠতে হয়। অনেকে রাত জেগে সকালে দেরি করে উঠলেও সঠিক ঘুমটি কিন্তু দিনে হয় না। যার ফলে আমাদের শরীরে মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যায়। আর ঠিক এই কারণেই আমাদের এই বদঅভ্যাস পরিবর্তন দরকার।

মাঝে মধ্যে কোন কারণ বশত রাত জাগলে তেমন কোন ক্ষতি হয় না। কিন্তু নিয়মিত বা প্রায় প্রতিদিন রাত জাগলে বিশাল ক্ষতি হতে পারে। আসুন দেখে নেই রাত জাগার কুফল্গুলি-

১। সাফল্য না আসাঃ যারা নিয়িমিত রাত জাগেন, তারা কোনদিনও জীবনে সফলকাম হতে পারেন না। কেননা নিয়মিত রাত জাগলে মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়। কাজে তেমন মনোযোগ আসে না। সাড়াদিন আলস্যভাব কাজ করে। যার ফলে রাত জাগলে মানুষ কখনোই তার কাজে সফল হতে পারে না।

২। স্থুলতাঃ রাত জাগার ফলে মানুষের ব্যায়ামের ইচ্ছে একেবারেই কমে যায়। খুধা বেশি লাগে। যার ফলে মানষের ওজন বেড়ে যায়।

৩। অনিয়ম অভ্যাসঃ দীর্ঘদিন রাত জাগার ফলে মানুষের স্বাভাবিক নিয়মের জীবনযাপনে অনেক বাধা বিপত্তি ঘটে। মানুষ তখন চাইলেও তার স্বাভাবিক নিয়মে ফিরে আসতে পারে না।

৪। বিভিন্ন রোগঃ রাত জাগার ফলে অনেকের মধ্যে মদপান ও ভাজোপোড়া খাওয়ার প্রবণতা বেড়ে যায়। যার ফলে তাদের বদহজম হয়।যার ফলে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ সহ বিভিন্ন অসুখ হতে পারে। এছাড়া অনেকে রাত জাগার ফলে কোষ্ঠ্যকাঠিন্য সহ বিভিন্ন হজম না হওয়া সংক্রান্ত রোগে ভুগেন।