নেত্রকোণার বারহাট্টায় ঢাকা থেকে মোহনগঞ্জগামী হাওড় এক্সপ্রেস ট্রেনের নীচে কাটা পড়ে দুই সহোদরসহ ৩ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। আজ রবিবার ভোরে উপজেলার সাহতা ইউনিয়নের স্বল্প-দশাল গ্রাম এলাকায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা স্বল্প-দশাল গ্রামের কুরবান আলীর ছেলে মোখলেছ (২৮) ও আব্দুল হেকিমের দুই ছেলে রিপন (২৪) ও স্বপন (২২)। 

স্বল্প-দশাল গ্রামের রংগু মিয়াসহ স্থানীয়রা জানান, তারা মাছ ধরার জন্য শনিবার রাতভর রেল লাইনের দক্ষিণে পার্শ্ববর্তী একটি পাগার (ছোট পুকুর) থেকে মেশিনে পানি নিষ্কাশনের কাজ করছিলেন।

ক্লান্ত হয়ে বিশ্রামের জন্য তারা রেলাইনের ওপর এসে শুয়ে ঘুমিয়ে পড়েন বলে ধারণা করা হচ্ছে। মৃতদের মধ্যে দুইজনের মুখ নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে।

রেলওয়ের মোহনগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী পরিদর্শক সমর বড়ুয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।