অফিসের মধ্যে কাজের ফাঁকে অনেকেই টয়লেটে বেশি সময় ব্যয় করে। এবার হয়তো সেখানেও নজরদারি চালাতে পারে কর্তৃপক্ষ। কারণ স্মার্ট পাবলিক টয়লেটে থাকছে একরকমের টাইম সেন্সর। যাতে করে কোনও কর্মী টয়লেটে বেশিক্ষণ সময় কাটাতে না পারেন। সময়সীমাও বেধে দেওয়া হয়েছে। ১৫ মিনিট।

চীনের সাংহাইয়ে এমন অভিনব ব্যবস্থা নিয়েছে সেখানকার মিউনিসিপ্যাল অথরিটি। শহরের বিভিন্ন জায়গায় ১৫০টি স্মার্ট পাবলিক টয়লেট তৈরির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। প্রতিটি কিউবিকলে থাকছে হিউম্যান বডি সেন্সর। যেটি সময়সীমা অনুযায়ী একটি রে সেন্সর করে জানান দেবে যে, ভিতরে কোনও ব্যক্তি আছে কিনা। সব তথ্যই সরকারের কাছে জমা হতে থাকবে। এমন অভিনব পদক্ষেপ নিয়েছে সরকারপক্ষ।

শুধু সময় অনুযায়ী কিউবে কেউ আছে কিনা তাই দেখার দায়িত্ব পালন করবে তা নয়। এই সেন্সরের মাধ্যমে এও বোঝা যাবে ওই কিউবে কতটা তাজা বাতাস রয়েছে, পানি কতটা মজুত রয়েছে।

সূত্র: সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, এশিয়া ওয়ান