বিড়ি খেতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধের

2 second read
0
0
76

নিয়মিত ধূমপান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। একথা জানেন সকলেই। তবুও সুখটানের আকর্ষণ এড়াতে পারেন না অনেকেই। কিন্তু, জানেন কী, ধূমপান করার সময়েও ঘটে যেতে পারে অঘটন? মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। ভাবছেন তো, এ আবার কী করে সম্ভব? তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির তুঘলকাবাদে। বিড়ি খাওয়ার সময়ে পোশাকে আগুন লেগে মৃত্যু হয়েছে বাহাত্তর বছরের এক বৃদ্ধের।

 

মৃত জয়চাঁদ বিধুরি জমি-বাড়ির দালালি করতেন। সোমবার সকালে বাড়ির একতলার একটি ঘরে একাই ছিলেন তিনি। জয়চাঁদ বিধুরির স্ত্রী জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার কিছুক্ষণ আগেই তাঁর কাছে বিড়ির প্যাকেট ও দেশলাই চেয়েছিলেন জয়চাঁদ। স্বামীকে বিড়ির প্যাকেট ও দেশলাই দিয়েওছিলেন তিনি। কিন্তু, কিছুক্ষণ পরেই জয়চাঁদ যে ঘরে ছিলেন, সেই ঘর থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখেন পরিবারের লোকেরা। তড়িঘড়ি জয়চাঁদের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেন তাঁরা। কিন্তু ঘরটি ভিতর থেকে বন্ধ ছিল। শে্ষপর্যন্ত যখন ঘরের দরজা ভাঙা হয়, তখন দেখা যায়, ঘরের মেঝেতে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় পড়ে রয়েছেন জয়চাঁদ বিধুরি। হাসপাতালে নিয়ে গেলে, তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসকরা।

 

কিন্তু, বন্ধ ঘরে কীভাবে অগ্নিদগ্ধ হলেন বাহাত্তর বছরের ওই বৃদ্ধ?  প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, বন্ধ ঘরে বসে ধূমপান করার সময়ই কোনওভাবে জ্বলন্ত বিড়ি থেকে জায়চাঁদের পোশাকের আগুন লেগে গিয়েছিল। এত দ্রুত যে আগুন ছড়িয়ে পড়েছিল, যে তিনি ঘর থেকে বেরিয়ে আসার বা চিৎকার সুযোগও পাননি। ফলে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান জয়চাঁদ বিধুরি। ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *