করোনা আতঙ্কের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গরমও। এদিকে এখন বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় নয় একদমই। সব মিলিয়ে এই সময়ে আপনাকে সুস্থ ও চনমনে রাখতে প্রয়োজন এক গ্লাস ফলের রস। রং-বেরঙের ফলের রস খেতেই যে শুধু ভালো তাই নয়, আপনাকে ভিতর থেকে পুষ্টি জোগাতেও সমান কার্যকরী। জেনে নিন আরও কিছু উপকারিতা-

পুষ্টি: তাজা ফলের রসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, এনজাইম আর মিনারেলস থাকে যা আপনার শরীর খুব দ্রুত শুষে নিয়ে তা থেকে পুষ্টি পায়।

শরীর ডিটক্স করে: প্রতিদিন ফলের রস খেলে আপনার শরীরে জমা হওয়া টক্সিন বেরিয়ে যায়, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। আপনার এনার্জি লেভেলও অনেকটাই বেড়ে যায়।

ওজন কমায়: প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস ফলের রস খাবার হজম করতে সাহায্য করে, আপনার শরীরকে ভিতর থেকে মজবুত করে তোলে। ফলের রস খেলে পেট ভরা থাকে অনেকক্ষণ, ফলে উল্টোপাল্টা খাওয়ার প্রবণতা কমে, ওজনও কমতে থাকে।

ত্বক ও চুল সুন্দর হবে: মসৃণ ত্বক আর ঝলমলে চুল পেতে চাইলে আজ থেকেই হাতে তুলে নিন ফলের রসের গ্লাস।

প্রতিদিন যেকোনো একটি ফলের রস খেলে আপনার চুল আর ত্বকে চোখে পড়ার মতো উজ্জ্বলতা ফুটে উঠবে শিগগিরই।

মন ভালো হবে: গ্লাস ভরা কমলা রঙের পানীয় কিংবা আনারের টুকটুকে লাল রঙের রস দেখে মনটা ভালো যাবে মুহূর্তেই! সকাল সকাল যদি মন ভালো থাকে, তাহলে সারাদিন সেই ভালোলাগা আপনার সঙ্গে থাকবে। তাছাড়া ফলের রসের মনকাড়া স্বাদ তো আছেই।

প্যাকেটের ফলের রসে কিন্তু টাটকা ফলের রসের মতো পুষ্টি নেই, বরং প্রিজার্ভেটিভ রয়েছে যা খাওয়া ঠিক নয়। তাই টাটকা ফল রস করে তবেই খান। ফলের রস বানিয়ে বেশিক্ষণ ফেলে রাখবেন না। দ্রুত খেয়ে নিন।