করোনাভাইরাসের মহামারি রোধে চলছে লকডাউন। আর এই লকডাউনের মধ্যেই বাংলা বিনোদন জগতে এলো সুখবর। কোয়েল মল্লিক ও নিসপাল সিংয়ের পরিবারে এসেছে তাঁদের প্রথম সন্তান। ৫ মে সকালেই জন্ম নিয়েছে তাঁদের পুত্রসন্তান।

পারিবারিক সূত্রের বরাতে এমনটাই জানা গেছে।  

কোয়েলের  বাবা অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক জানিয়েছেন, কোয়েল ও তাঁর সন্তান দুজনেই সুস্থ আছেন। 

মল্লিক পরিবার ও সিং পরিবারের কাছে বর্তমান পরিস্থিতিতে এর চেয়ে বড় সুখবর আর কিছু হতে পারে না। ৫ মে ভোর পাঁচটা নাগাদ মা হয়েছেন অভিনেত্রী কোয়েল। 

ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, সদ্যোজাতের ওজন ৩.১ কেজি। 

সংবাদমাধ্যমকে  সুসংবাদটি দিয়ে অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক জানিয়েছেন, লকডাউনে এর চেয়ে খুশির খবর আর কী হতে পারে। সন্তান ও মা দুজনেই ভাল আছে।

বাংলা ছবির সবচেয়ে বড় নায়িকাদের অন্যতম কোয়েল মল্লিক ও নিসপাল সিংয়ের বিয়ে হয় ২০১৩ সালে। বিয়ের পরে অভিনয় থেকে সাময়িক বিরতি নিলেও আবারও নিয়মিত অভিনয় শুরু করেন। 

গত বছর কোয়েল অভিনীত ‘মিতিনমাসি’ মুক্তি পাওয়ার পরেই জানা যায় যে তিনি  মা হতে চলেছেন। গত ২৮ এপ্রিল ছিল তাঁর জন্মদিন। তার পরেই তাঁর জীবনে এলো প্রথম সন্তান। এখনও সন্তানের নামকরণ নিয়ে কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।

ভবানীপুরের বিখ্যাত মল্লিক পরিবারের সদস্য, অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিকের মেয়ে কোয়েল মল্লিক তাঁর অভিনয় জীবন শুরু করেন নাটের গুরু ছবি দিয়ে। ২০০৩ সালে মুক্তি পেয়েছিল ওই ছবি, নায়কের ভূমিকায় ছিলেন জিৎ। কয়েক বছরের মধ্যেই তাঁর জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া হয়। সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ছবি ‘হেমলক সোসাইটি’ থেকে তাঁর কেরিয়ারের একটি নতুন পর্যায় শুরু হয়।

শুধুমাত্র বাণিজ্যিক ছবির নায়িকা হিসেবে নন, দক্ষ অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। ২০১৯ সালের ছবি মিতিনমাসি-র পরেই জানা গিয়েছিল তিনি সন্তানসম্ভবা। কিন্তু তার পরেও মিতিনমাসি-র সিকোয়েল এবং রক্ত রহস্য-র কাজ শুরু করেছিলেন, যথাসম্ভব সাবধানতা অবলম্বন করে। 

১০ এপ্রিল মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল রক্ত রহস্য কিন্তু লকডাউন ঘোষণা হওয়ায় তা অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে গিয়েছে। ছবি মুক্তি না পাওয়ার দুঃখ ভুলিয়ে দেবে অভিনেত্রীর পরিবারে এই নতুন সদস্যের আগমন।