আতঙ্ক রয়েছে, সেইসঙ্গে রয়েছে নতুন দিনের স্বপ্ন। কবে আবার সব ঠিক হবে সেই আশায় দিন গুনছেন প্রত্যেকেই। লকডাউন প্রত্যাহারের পর কে কী করবেন, সেই তালিকাও ভেসে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। কিন্তু লকডাউন প্রত্যাহার হলেও আগের সেই পরিচিত জীবনে হুট করে ফিরে যেতে পারবেন না। কয়েকটি কাজ লকডাউন উঠিয়ে নেয়ার পরেও বেশ কিছুদিন করতে পারবেন না। জেনে নিন কী সেই কাজ-

* করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে প্রায় গোটা বিশ্বে। তাই লকডাউন প্রত্যাহার হলেও কোথাও ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা আগামী কয়েক মাস স্থগিত রাখুন। অকারণে কোথাও যাওয়ার থেকে যতটা সম্ভব বাড়িতে থাকার চেষ্টা করবেন।

* লকডাউন প্রত্যাহার হলেই ভাববেন না যে করোনাভাইরাস নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল। হাত ধোয়ার যে অভ্যেস এই কিছুদিনে গড়ে তুলেছেন, তা বজায় রাখুন। বারবার হাত ধুলে করোনাভাইরাসের পাশাপাশি অন্য অসুখ-বিসুখও কম ছড়ায়।

* আড্ডা কিংবা পার্টি ছাড়া যারা থাকতে পারেন না, তাদের এই সময়টা নিশ্চয় খুব কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু কিছু করার নেই। লকডাউন প্রত্যাহার হলেই পার্টি করতে চলে যাবেন না। অনেক মানুষের ভিড় আগামি কয়েক মাস এড়িয়ে চলুন।

* লকডাউন প্রত্যাহার হলেই ফেসমাস্কটা বাতিলের ঝুড়িতে ফেলে দেবেন না। আগামী বেশ কয়েক মাস বাইরে বেরোলে ফেসমাস্ক আপনার সঙ্গী হবে।

* মুখে না ঢেকে হাঁচি-কাশি দেবেন না। প্রকাশ্য স্থানে মুখ না ঢেকে হাঁচি-কাশি দেওয়া এমনিই অস্বাস্থ্যকর অভ্যাস। তাই রুমাল বা টিস্যু হাঁচি-কাশি দেয়ার সময় অবশ্যই ব্যবহার করবেন।