পুরো বিশ্বে করোনা আক্রান্তে’র সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বাড়ছে এতে আক্রান্ত হয়ে মৃতে’র সংখ্যাও। এরই মধ্যে বাংলাদেশেও হানা দিয়ে’ছে ভাইরাসটি।

দেশে ইতোম’ধ্যে এই রোগে মৃত্যু হয়েছে চারজনের। আর আক্রা’ন্ত হয়েছেন মোট ৩৯ জন।

এদিকে সাম্প্রতিক এক’টি মেডিকেল জার্নালে, করোনা চেনার জন্য তিনটি লক্ষণের কথা বলা হয়ে’ছে। যেখান থেকে আপনি বুঝ’তে পারবেন আপনার দেহে COVID-19 এর সংক্রমণ শুরু হয়ে’ছে!

প্রথমত, আপনার দেহে করো’না থাবা বসালে প্রথম পাঁচদিন আপনার কাশির সঙ্গে শু’কনো কফ থাকবে।

দ্বিতীয়ত, হঠাৎ করেই খুব জ্ব’র আসবে। সেই জ্বর চট করে নাম’তে চাইবে না।

তৃতীয়ত, জ্বরের সঙ্গে শু’রু হবে শ্বাসকষ্ট। সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে ফুস’ফুসে। ফুসফুস ফুলে ওঠা থেকে নানারকম সম’স্যা দেখা দেবে শরীরে। সেই সঙ্গে সারা শরী’রে ব্যথা এবং সর্দি থাকবে।

কীভাবে নিজে’কে বাঁচাবেন

কিছুক্ষণ পরপর ভালো করে সা’বান দিয়ে হাত ধুতে হবে।

কাশির সময় অবশ্যই রুমাল বা টিস্যু ব্যব’হার করতে হবে। প্রয়োজনে মাস্ক ব্য’বহার করুন।

অসুস্থ ব্যক্তি বা বয়স্ক, শিশু’দের এড়িয়ে চলুন।

এখন সর্দি-কাশি হলে যা ক’রবেন

বাইরে থেকে বাড়ি গিয়ে গোস’ল করাটাও কাজের কথা নয়। সারাদিন হালকা’ গরম পানি খান। গলায় ব্যথা বা সর্দি-কাশির স’ম্ভাবনা দেখা দিলে তো এই রুটিন চালু কর’তেই হবে। সেই সঙ্গে জোর দিন ভিটামিন সি খাও’য়ার উপরেও। লেবু, আমলকী, পেয়ারায় প্রচুর ভি’টামিন সি মিলবে।

আদা দিয়ে কালো চা খাও’য়া বা লবঙ্গ, আদা, গোলমরিচ, তেজপাতা ফুটিয়ে নি’য়ে চায়ের মতো পান করলে সর্দি-কাশিতে ভালো ফল পা’বেন। তাজা শাক-সবজি, ফল, বাদা’ম রাখুন খাদ্যতালিকায়।

যদি সর্দি-কাশি হয়, তাহলে বাড়ি’তে থাকুন। বিশ্রাম নিন। যেকোনো ভাইরাসের বিরুদ্ধে’ই শরীর প্রতিরোধ গড়ে তুলবে দ্রুতই, ততদিন অপে’ক্ষা করতে হবে।

হাঁচি-কাশির সময় মুখ-নাক ঢে’কে রাখুন যাতে ভাইরাস না ছড়ায়। সেই সঙ্গে বারবার হাতে স্যানি’টাইজার ব্যবহার করবেন। মুখে বা নাকে হাত দেওয়ার অভ্যা’স থাকলে সেটা ছাড়তে হবে।

বাড়ির সবা’র থেকে কয়েক দিন একটু দূরে থাকতে পারলে সবচে’য়ে ভালো হয়। যারা অসুস্থ রোগীর সে’বার কাজ করছেন, তারাও একটু দূর’ত্ব বজায় রেখে চলবেন।

ডাক্তার না পেলে চি’কিৎসা কীভাবে নিবেন

করোনা সন্দেহ হলে ডাক্তা’রের কাছে না গিয়ে বাসায় বসে চিকিৎসা নিন। জ্বর, ঠান্ডা,কা’শির রোগীরা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকুন। হাস’পাতালে বা চেম্বারে ভীড় করে অন্যদেরকে ঝুঁকির মুখে ফেলার কোন প্রয়োজন নেই।

চিকিৎসা

>Tab. Napa Extend (665mg) or. ACE

১+১+১-ভরা পেটে,জ্বর,ব্যা’থা থাকে,প্রয়োজন মতো…

>Tab. Fenadin (120mg),

০+০+১=৭ দিন

> Tab. Dexlan (30mg)

১+০+১ খাবারে’র ৩০ মিনিট পূর্বে

> Tab. Ceevit/Vasco (250mg)

১+০+১….–২ সপ্তা’হ

> Antazol Nasal drop

১ ফোটা,২ নাকের ছি’দ্রে,দিনে ৩ বার

> or saline