করোনা আবহের মধ্যেই নয়া চাঞ্চল্য। মহাকাশে আচমকা ভিনগ্রহের প্রাণী এসেছিল! এমনই দাবি মার্কিন নৌবাহিনীর। সোমবার তিনটি ভিডিও প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক সদর দপ্তর পেন্টাগন। তাদের দাবি, মহাকাশে তিনটি আনআইডেন্টিফায়েড ফ্লাইং অবজেক্টস বা ইউএফও দেখা গেছে। ঝাপসা সেই ভিডিওতে দেখা গেছে, কিছু বস্তু মহাকাশে ভাসছে। 

মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তরের সরকারি ওয়েবসাইটে ভিডিও আপলোড করেছে পেন্টাগন। একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানিয়েছে, জনমানসে যে চাঞ্চল্য ও বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে বিভিন্ন ভিডিও নিয়ে সেগুলি স্পষ্ট করার জন্যই এই ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে।

তবে এই ভিডিও প্রকাশ করে বিষয়টি নিয়ে আতঙ্ক না ছড়িয়ে তদন্ত করা হবে বলে দাবি করেছে পেন্টাগন। এই ভিডিওগুলো মার্কিন নৌসেনার ট্রেনিং পাইলটরা ২০০৪ এবং ২০১৫ সালে তুলেছিল। দুটি ভিডিওর কথা ২০১৭ সালে নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত হয়। 

পেন্টাগন তাদের বিবৃতিতে জানিয়েছে, পুঙ্খানুপুঙ্খ পর্যালোচনা করার পরে, প্রতিরক্ষা দপ্তর নির্ধারণ করেছে যে এই শ্রেণিবদ্ধ ভিডিওগুলোর অনুমোদিত প্রকাশে কোনো সংবেদনশীল ক্ষমতা বা সিস্টেম প্রকাশ করে না। অব্যক্ত বায়বীয় বস্তু সামরিক বিমানের ওপর আক্রমণের ক্ষেত্রে জড়িত নয়। 

পেন্টাগনের দ্বারা ভিডিওগুলো প্রকাশের ফলে ভিডিওগুলোর বৈধতা আরো বেড়ে গেছে এবং আরো জল্পনা যে, সম্প্রতি এই অতিজাগতিক বস্তু মানুষের সংস্পর্শে আসার চেষ্টা করেছে। ভিনগ্রহ থেকে সবুজ গ্রহে কিছু আসার চেষ্টা  করছে।