লকডাউনের জেরে ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের রায়গড় জেলার পানভেলের বাগান বাড়িতে রয়েছেন সালমান খান। সরকারি নিয়ম মেনেই পানভেলের বাগান বাড়ি থেকে মুম্বাইয়ের ব্যান্দ্রায় ফেরেননি তিনি।

কিন্তু লকডাউনের জন্য বাবা সেলিম খানের সঙ্গে দেখা হচ্ছে না তার। পানভেলে থাকাকালীন সালমান যখন লকডাউনের মধ্যে পড়েন, সেই সময় সেলিম খান একা ব্যান্দ্রার গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে। সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তায় এমনই জানান খোদ সালমান। কিন্তু ব্যান্দ্রায় থেকে নাকি নিয়ম ভাঙছেন প্রখ্যাত গীতিকার সেলিম খান ।

পিঙ্কভিলা-সহ বেশ কয়েকটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ব্যান্দ্রা পর্যন্ত প্রতিদিন হাঁটতে বের হন সেলিম খান। আর এতেই নাকি অসন্তুষ্ট ভাইজানের প্রতিবেশীরা। লকডাউনের মাঝে নিয়ম ভেঙে সেলিম খান কেন হেঁটে বেড়াচ্ছেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তাদের প্রতিবেশীদের একাংশ।

যার উত্তরে সালমানের বাবা জানান, সরকারি নিয়ম নীতি মেনেই চলছেন তিনি। দেশের একজন সচেতন নাগরিক তিনি। তাই চিকিৎসকের নিয়ম মেনেই হাঁটতে বের হন। শারীরিক অসুস্থতার জন্য গত ৪০ বছর ধরে তিনি হাঁটছেন। চিকিৎসকের নির্দেশের পাশাপাশি সরকারি নিয়ম মেনেই তিনি চলছেন। লকডাউনে কোনও নিয়ম তিনি ভাঙছেন না। গত ৪০ বছর ধরে যে নিয়ম মেনে তিনি চলছেন, তা যদি হঠাৎ করে বন্ধ করে দেন, তাহলে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়বেন। সে কারণেই নিয়ম মেনে হাঁটছেন।