শুঁটকি মাছেই কমছে কভিড-১৯ করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি। অন্তত এমনটাই মনে করছেন উত্তর-পূর্ব ভারতের সাধারণ মানুষ। শুধু তাই নয়, এই কথায় সহমত পোষণ করেছেন চিকিৎসকরদের একাংশও। করোনা মহামারীর মধ্যেও এখনও কিছুটা স্বস্তিতে রয়েছেন উত্তর-পূর্ব ভারতের ৮ রাজ্যের মানুষ। যার মধ্যে ৫ রাজ্য সম্পূর্ণ করোনা মুক্ত। বাকি ৩ রাজ্যের পরিস্থিতিও আয়ত্বে। 

উল্লেখ্য, ম্যালেরিয়া প্রবণ এই অঞ্চলের মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। কার্যত তাদের খাদ্যাভ্যাসই এই অন্যতম কারণ। পুঁটি মাছকে প্রক্রিয়াজাত করে সিঁদল বানিয়ে তারপর পুড়িয়ে খাওয়া এই অঞ্চলে বহুদিনের চল।

সবজির সঙ্গে এই পোড়া পুঁটি মাছ দিয়েই রান্না হয় গোদক। খুব ঝাল এই গোদকই ম্যালেরিয়ার যম, বলছেন স্থানীয়রা। জ্বর বা সর্দিকাশি হলে গোদকের চাহিদা বাড়ে উপজাতি মহল্লায়। পাহাড়িদের পাশাপাশি সমতলবাসীরও প্রিয় এই গোদক। কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধেও নাকি দারুণ কাজ করছে এই গোদক। অন্তত এমনটাই ধারণা স্থানীয়রা।

আর এটাকে নিছক ভ্রম বলেও উড়িয়ে দিতে পারছেন না চিকিৎসকদের একাংশ। কোনো যুক্তিযুক্ত প্রমাণ না মিললেও এই পোড়া শুঁটকিকেই করোনা মোকাবেলার কৌশল মানছেন উত্তর-পূর্ব ভারতের বাসিন্দারা।

সূত্র: জিনিউজ