২০১৭ সালে মাইকে আজান দেয়ার প্রতিবাদ করে তোপের মুখে পড়েছিলেন বলিউড সঙ্গীত শিল্পী সোনু নিগম।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে আবার সেই বির্তক সামনে এলো। শুধু তাই নয়, সোনু নিগমকে গ্রেফতারের জন্য অনুরোধও করেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সোনুকে নেটিজেনদের প্রশ্ন তোলেন, সোনু এখন দুবাইয়ে রয়েছেন। দুবাই মুসলিম প্রধান দেশ। সেখানে তো তাকে রোজ আজান শুনতে হচ্ছে। এখন কেন বিরোধিতা করছেন না সোনু?

অনেকে আবার সোনুর পুরনো টুইটের স্ক্রিনশট দুবাই পুলিশকে ট্যাগ করছেন। এবং দুবাই পুলিশের কাছে তারা আবেদন জানিয়েছেন, সোনুকে গ্রেফতার করা হোক।

জিনিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লকডাউনের এই মুহূর্তে দুবাইতে সপরিবারে আটকে পড়েছেন সোনু নিগম। সেখান থেকে মহামারী করোনাকে হারানোর জন্য সবাইকে একসঙ্গে মিলে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। এর থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ এই মুহূর্তে আর কিছুই হতে পারে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন সোনু নিগম। যেখানে দুবাইয়ের একটি জিমে শরীরচর্চার সময় এই শিল্পীকে বলতে শোনা যায়, ‘অনেকেই আমাকে ঠিক করে জানেন না, সে কারণেই তারা ঠিক বুঝতে পারেন না। আর আমি এটা খারাপভাবে নিই না, কারণ ওনারা তো ঠিক করে আমাকে জানেনই না। তবে যারা পাশে থেকেছেন তাদের ধন্যবাদ। আমার গুরু আমায় শিখিয়েছিলেন যে সম্মান দেয়, সেই আবার কখনও অসম্মান করে বসে।’

তবে সোনু যে এই বক্তব্য টুইটারে নতুন করে ওঠা আজান বিতর্ক নিয়েই রেখেছেন, তা অবশ্য তিনি স্পষ্ট করেননি।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালে ওই বিতর্কের পরই তিনি টুইটার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করেছিলেন।