বয়সের সঙ্গে সঙ্গে মাথার চুল পড়ে যাওয়া’টা স্বাভাবিক। যদি এই সমস্যা অল্প বয়সেই দেখা দেয় তবেই বিপ’দ! এই সমস্যাটি এখন অনেকেরই দেখা যায়। যা খুবই বিরক্তিকর একটি সম’স্যা। চুল ঝরে যাওয়ার কারণে এক সময় মাথায় টা’ক পড়ে যায়। যা অল্প বয়সেই আপনাকে বয়’স্ক বানিয়ে ফেলে। 

চুলের এই সমস্যা কেন হ’চ্ছে জানেন কি? বেশ কয়েকটি কারণে অকালে চুল ঝ’রে যেতে পারে। তার মধ্যে মাত্রাতিরিক্ত মানসি’ক চাপ, ব্যাকটেরিয়ার  সংক্রমণ বা অ্যালার্জি, রক্তাল্প’তা, আবহাওয়া, অপুষ্টি এবং খারাপ পানি অন্যতম। তবে অকা’লে চুল ঝরে যাওয়ায় অপুষ্টিই বড় কারণ।

পুষ্টিবিদ’দের মতে, কয়েকটি খাবার বা মশলা নিয়মিত খেতে পারলে অপুষ্টিজনিত কারণে চুল ঝ’রা বন্ধ হবে এবং নতুন চুলও গজাবে। চলুন তবে জে’নে নেয়া যাক সেই খাবারগুলো সম্পর্কে-

আমলকী

চুলের পরিচর্যা’য় যুগ যুগ ধরেই আমলকীর ব্যবহার হয়ে আসছে। আমলকীতে র’য়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। প্রতিদিন একটা করে আম’লকী খেতে পারলে অকালে চুল ঝ’রে যাওয়া থেকে রেহাই পাওয়া সম্ভব।

পালংশাক

পালংশা’কে রয়েছে ভিটামিন বি, সি, ই, আর ভিটামিন এ। এছাড়াও এতে রয়েছে ওমে’গা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও আয়রন। এই উপাদা’নগুলো চুলের গোড়া শক্ত করতে সাহায্য করে। তাই চুল ঝরা সমস্যা যাদে’র আছে তারা নিয়মিত পালংশাক খান।

মেথি 

চুলের পরিচ’র্যায় মেথি অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। মেথিতে রয়েছে প্রচুর প’রিমাণে প্রোটিন ও নিকোটিনিক অ্যাসিড। যা চুলের গো’ড়া শক্ত করে অকালে অতিরিক্ত চুল ঝ’রে যাওয়া রুখতে সাহায্য করে। প্রতিদিন মেথি ভেজা’নো পানি খেতে পারলে ফল পাবেন হাতে নাতে।

নারকেল তেল

নারকেল তে’লে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে লরিক অ্যাসিড যা চুলে প্রোটিনের জোগা’ন দিয়ে গোড়া মজবুত করতে সাহায্য করে। তাই মাথা’য় এই তেল ব্যবহার করুন। সঙ্গে নারিকেল তেল দিয়ে খাবার রা’ন্না করে খেতে পারলেও অকালে চুল ঝরে যাওয়ার সম’স্যায় দুর্দান্ত ফল মিলবে।