ভারতের প্রধান চিকিৎসা গবেষণা সংস্থা কয়েকটি রাজ্যকে চীন থেকে আনা দ্রুত পরীক্ষার কিট ব্যবহার স্থগিত রাখতে বলেছে। এ কিটগুলো ত্রুটিপূর্ণ বলে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) বিবিসি বাংলার একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। 

বেশ কয়েকটি রাজ্য এ পরীক্ষা কিটগুলো সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। এই যন্ত্র দিয়ে অ্যান্টিবডির উপস্থিতি ধরা পড়ার কথা। তারা বলছে এ যন্ত্র কাজ করছে না।

পরীক্ষা বাড়ানোর জন্য ভারত চীন থেকে দশ লাখ কিট আমদানি করেছে। আরও কয়েকটি দেশ চীন থেকে আমদানি করা র‍্যাপিড টেস্টিং কিট-এ সমস্যার অভিযোগ করেছে। 

তবে চীন তাদের যন্ত্রের মান খারাপ- এ অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছে।

চীন এক বিবৃতিতে বলেছে, তারা রফতানি করা চিকিৎসা সরঞ্জামের মানকে খুবই গুরুত্বের সঙ্গে দেখে।

এদিকে ভারতের রাজস্থানের কর্মকর্তারা বলেন, পজিটিভ হিসাবে ইতোমধ্যেই শনাক্ত রোগীর ওপর এই যন্ত্র দিয়ে পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল এসেছে।

ভারতের চিকিৎসা গবেষণা কাউন্সিল (আইসিএমআর) দেশের প্রত্যেকটি রাজ্যকে এই কিট ব্যবহার দুদিনের জন্য স্থগিত রাখার পরামর্শ দিয়েছে। তারা জানিয়েছে তারা এগুলো আগে পরীক্ষা করে দেখছে।