প্রাণঘাতী করোনাভা’ইরাসে মারা যাওয়ার দুই’দিন পর আবারো বেঁচে উ’ঠলেন এক নারী। সেই সাথে এক ১১ ব’ছর বয়সী শিশু ফিরে পেলো তা’র মাকে। হাসপা’তালের ভুলের কার’ণে করোনা আক্রা’ন্ত ওই নারীকে মৃত ঘোষ’ণা করা হয়। এর দুইদি’ন পর হাসপা’তাল থেকে ফোন করে আবা’র তাকে জীবিত ঘোষ’ণা করা হয়। নিজেদের  এই মারাত্বক ভুলে’র জন্য ক্ষমা চেয়ে’ছে হাসপাতাল কতৃ’পক্ষ। 

 মৃত মাকে ফিরে পেয়ে বা’করুদ্ধ ১১ বছর বয়সী ওই শিশু। পরিবারের সদস্য’রা বলছে, এরই মধ্যে শেষকৃত্যের সব আয়ো’জন শেষ করেছিল তারা। জানায়, বৃদ্ধাশ্র’মে চাকরি করত ওই নারী। ওইখান থেকে তার শরীরে করো’নার জীবাণু আসে।

এরপর তাকে হাসপাতা’লের ইনটেনসিভ কেয়া’রে রাখা হয়। তার চিকিৎসার জন্য ভেন্টি’লেটর ব্যবহার করা হয়। এ’র দুই ঘন্টা পরেই হাসপাতাল থেকে ফোন আ’সে সে মারা গেছে। 

এর দুইদি’ন পরে মৃত ওই না’রীর ভাই হাসপাতালে গেলে তাকে বুঝি’য়ে সব বলা হয়। হাসপাতা’লে অনেক কাজের চা’পের কারণে এ ধরণে’র ভুল হয়েছে বলে বলছে কতৃ’পক্ষ। অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জ’ন্য ক্ষমা প্রার্থনাও করেছে’ন তারা।

এরই মধ্যে জা’র্মানীতে লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়ে ১০ মে পর্যন্ত করে’ছেন চ্যাঞ্চেলর অ্যাঙ্গে’লা মার্কেল। দেশটি’তে এখন পর্যন্ত করো’নায় আক্রান্ত হয়েছে ১ লা’খ ৬৩ হাজার ৯ জন।