ইরানের অভিজাত কুদস ফোর্সকে স’হায়তার অভিযোগে তাইফ মাইনিং সার্ভিস ও তার মালিকের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আ’রোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

ইরান থেকে ইয়েমেনে জাহা’জে মালামাল পাচারের অভিযোগের কথা বলা হচ্ছে তাদের বি’রুদ্ধে। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তা সং’স্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

এমন এক সময় এই নিষেধাজ্ঞা আরো’প করা হল, তখন বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহা’মারীর প্রাদুর্ভাব চলছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গত কয়েক বছ’র ধরে কুদস ফোর্সের পাচারে সহায়তা করেছে ইরানি ও ইরাকি যৌথ নাগরি’ক আমির দিয়ানাত। যার মধ্যে ক্ষেপণাস্ত্রসহ বিভি’ন্ন অস্ত্র চালানও রয়েছে।

এছাড়া তাকে কালো তালিকায়ও অন্তর্ভুক্ত করার ক’থা বলছে মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়। তার বিরুদ্ধে ফৌজ’দারি অপরাধের মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

কুদস ফোর্সের এই ব্যবসায়ী সহযো’গীর বিরুদ্ধে অর্থপাচার ও নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনেরও অভি’যোগ তোলা হয়েছে।

২০১৮ সালে ইরানের সঙ্গে বৈশ্বিক পরমাণু চুক্তি থেকে একতরফাভাবে সরে যাওয়া’র ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর থেকে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটছে।